বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

গবেষণা অনুযায়ী, ফাইজার-বায়োএনটেকের দুই ডোজ নেওয়ার ছয় মাস পরবর্তী এক মাসের মধ্যে সংক্রমণের বিরুদ্ধে কার্যকারিতা ৮৮ শতাংশ থেকে কমে ৪৭ শতাংশে নেমে আসে।

‘ল্যানসেট’ সাময়িকীতে প্রকাশিত এ গবেষণার ফলাফলের সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রের সেন্টারস ফর ডিজিজ কন্ট্রোল অ্যান্ড প্রিভেনশন (সিডিসি) ও ইসরায়েলি স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের প্রাথমিক প্রতিবেদনের সংগতি রয়েছে। এতে ইঙ্গিত দেওয়া হয় যে ফাইজার-বায়োএনটেকের দুই ডোজ টিকা নেওয়ার ছয় মাসের মধ্যে করোনার বিরুদ্ধে তার সুরক্ষা কমে যায়।

গবেষকেরা বলছেন, ‘ল্যানসেট’ সাময়িকীতে প্রকাশিত এ গবেষণার ফলাফল বিশ্বব্যাপী করোনার টিকাদানের হার আরও জোরদার করার গুরুত্বকে তুলে ধরে।
ফাইজার-বায়োএনটেকের দুই ডোজ দেওয়ার পর একটা পর্যায়ে সুরক্ষাক্ষমতা কমে যেতে পারে, এমন উদ্বেগের মধ্যে প্রাপ্তবয়স্ক সবার জন্য এ টিকার বুস্টার ডোজের অনুমোদন দিয়েছে ইউরোপীয় ইউনিয়নের (ইইউ) ওষুধ নিয়ন্ত্রক সংস্থা।

সম্প্রতি যুক্তরাষ্ট্র ৬৫ বছরের বেশি বয়সী ব্যক্তিদের ক্ষেত্রে ফাইজার-বায়োএনটেকের করোনা টিকার বুস্টার ডোজ ব্যবহারের অনুমোদন দেয়। একই সঙ্গে দেশটিতে গুরুতর রোগের উচ্চঝুঁকিতে থাকা প্রাপ্তবয়স্ক ব্যক্তি ও করোনায় সংক্রমিত হওয়ার উচ্চঝুঁকিপূর্ণ কাজে নিযুক্ত ব্যক্তিদের ক্ষেত্রেও এ টিকার বুস্টার ডোজ ব্যবহারের অনুমোদন দেওয়া হয়।

বিশ্ব থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন