ইতালির ইউনিভার্সিটি অব পালের্মো থেকে সম্প্রতি স্নাতকোত্তর ডিগ্রি পেয়েছেন জিউসেপ্পে। তাঁর বিষয় ছিল ইতিহাস ও দর্শন। দুই বছর আগে একই বিশ্ববিদ্যালয় থেকে একই বিষয়ে স্নাতক ডিগ্রি অর্জন করেন তিনি। তখনই ইতালির সবচেয়ে বয়স্ক শিক্ষার্থীর উপাধি পেয়েছিলেন তিনি। এবার নিজের শিক্ষাজীবনে নতুন আরেকটি পালক যুক্ত করেছেন শতবর্ষ ছুঁতে যাওয়া প্যাতার্নো।

প্যাতার্নোর পরিবারের পক্ষ থেকে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে এক পোস্টে জানানো হয়েছে, শুধু ৯৮ বছর বয়সে ডিগ্রি অর্জন করেই রেকর্ড গড়েননি প্যাতার্নো; বরং তিনি তাঁর ব্যাচে সর্বাধিক নম্বরও পেয়েছেন। এটাও তাঁর জন্য এক অনন্য অর্জন।

এই বয়সে পড়াশোনার মতো কঠিন কাজও নির্বিঘ্নে করেন প্যাতার্নো। তিনি ভীষণ পরিশ্রম করতে পারেন, বিশ্রাম নিতে চান না। তাঁর পরিবার জানিয়েছে, বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ডিগ্রি অর্জনের পর এখন নতুন পরিকল্পনা করছেন প্যাতার্নো। তিনি একটি উপন্যাস লিখতে চান। এ জন্য নিজের পুরোনো টাইপরাইটার ঝেড়েমুছে পরিষ্কার করেছেন।

সিসিলির একটি দরিদ্র পরিবারে প্যাতার্নোর জন্ম। শৈশব থেকেই পড়াশোনা করতে পছন্দ করতেন তিনি। বই নিয়ে সারাক্ষণ ব্যস্ত থাকতেন। কিন্তু আর্থিক সংগতি না থাকায় তরুণ বয়সে বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াশোনা করতে পারেননি।

বিশ্ব থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন