মার্কিন সংবাদমাধ্যম ইউনাইটেড প্রেস ইন্টারন্যাশনাল (ইউপিআই) গত শুক্রবার এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, ডাল্টনের বয়স ২০ বছর। বাড়ি যুক্তরাষ্ট্রের মধ্য-পশ্চিমাঞ্চলের অঙ্গরাজ্য আইওয়ার ডেভেনপোর্ট শহরে। হাইস্কুলে পড়ার সময় থেকেই দ্রুত হাততালি দেওয়ার শখ তাঁর। পরে হাততালি দেওয়ার অনুশীলন শুরু করেন তিনি। শিখতে থাকেন এ-সংক্রান্ত কৌশল। এখন এক মিনিটে টানা ১ হাজার ১৪০ বার হাততালি দিতে পারেন ডাল্টন। অর্থাৎ প্রতি সেকেন্ডে ১৯ বার হাততালি দেন তিনি।

মূলত ইউটিউবের ভিডিও দেখে এই শখ চেপেছিল ডাল্টনের। তিনি কেন্ট ফ্রেঞ্চের একটি ভিডিও দেখেছিলেন। কেন্ট সবচেয়ে দ্রুত হাততালি দেওয়ার জন্য বিশ্বে পরিচিত। তবে এক মিনিটে সবচেয়ে বেশি ১ হাজার ১০৩ বার হাততালি দেওয়ার বিশ্ব রেকর্ড এলি বিশপের দখলে ছিল। এলির সেই রেকর্ড ভেঙে দিয়েছেন ডাল্টন। এলির চেয়ে এক মিনিটে অতিরিক্ত ৩৭ বার হাততালি দিয়ে ডাল্টন এই রেকর্ড নিজের করে নিয়েছেন।

এই বিষয়ে ডাল্টন বলেন, ‘অনুশীলন ছাড়াই আমি সহজাতভাবে দ্রুত হাততালি দিতে পারি। তবে অনুশীলন ও কৌশল শেখার পর এই গতি আরও বেড়েছে। এখন আমি দ্রুততম সময়ে সবচেয়ে বেশিবার হাততালি দেওয়ার কৌশল আয়ত্ত করেছি। স্বীকৃতিও পেয়েছি।’