default-image

আগামী বছরের শুরুতেই সাধারণ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে পূর্ব আফ্রিকার দেশ উগান্ডায়। নির্বাচন পর্যবেক্ষণ করতে ৬০টির বেশি সংস্থা মিলে একটি জোট গঠন করেছিল। কিন্তু এ জোটকে অবৈধ বলে নির্বাচনে তাদের নিষিদ্ধ করেছে দেশটির কর্তৃপক্ষ। বিবিসির এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

উগান্ডার বেসরকারি সংগঠনগুলোর (এনজিও) নিয়ন্ত্রণে গঠিত জাতীয় ব্যুরো বলেছে, ৬০টির বেশি সংস্থা নিয়ে গঠিত হলেও ন্যাশনাল ইলেকশন ওয়াচ-উগান্ডা নিবন্ধিত নয়। এর মধ্যে কিছু সংস্থা আছে যাদের কোনো নিবন্ধন নেই এবং তাদের উগান্ডায় কাজ পরিচালনায় জন্য অনুমতিও নেই।

বিজ্ঞাপন

উগান্ডার এনজিও নিয়ন্ত্রণ ব্যুরোর প্রধান স্টিফেন ওকেলো বলেন, নির্বাচন পর্যবেক্ষণের লক্ষ্যে গঠিত সংস্থাটিকে অবশ্যই তাদের কার্যক্রম দ্রুত বন্ধ করতে হবে। তাদের বিবৃতি দেওয়ায় বন্ধ করতে হবে।

২০২১ সালের জানুয়ারিতে উগান্ডায় প্রেসিডেন্ট ও পার্লামেন্ট নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।

উগান্ডার অ্যাকশনএইড ইন্টারন্যাশনাল তাদের সাইটে এক বিবৃতিতে বলেছে, গত মাসে তারা দেশটিতে নির্বাচনে স্বচ্ছতা সৃষ্টি, জনগণের নির্বাচনে অংশগ্রহণ ও আত্মবিশ্বাস বাড়াতে কাজ করার জন্য কাজ শুরু করেছে।

উগান্ডার সরকার এনজিওগুলোর কড়া সমালোচনা করে আসছে। এনজিওগুলোর বিরুদ্ধে বিদেশি স্বার্থের বিষয়গুলো প্রচার ও সরকারি কাজের নকল করার অভিযোগ তোলা হচ্ছে।

২০১৭ সালে দেশটিতে তিনটি সংস্থা অফিসে অভিযান চালায় পুলিশ। এসব সংস্থার বিরুদ্ধে অবৈধ অর্থ লেনদেন ও দেশকে অস্থিতিশীল করতে নানা কর্মকাণ্ড চালানোর অভিযোগ তোলা হয়।

মন্তব্য পড়ুন 0