default-image

রাজত্ব পাওয়ার এক মাসের মাথায় মারা গেলেন জুলু রানি সিওয়ে মান্তফম্বি দলামিনি জুলু। দক্ষিণ আফ্রিকার সবচেয়ে বড় জাতিগোষ্ঠী জুলু। গত মাসে মারা যান তাদের রাজা গুডউইল জোয়েলিথিনি। এরপর জাতিগোষ্ঠীটির দায়িত্ব নেন রানি মান্তফম্বি।
ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসির খবরে বলা হয়, জুলু রাজপরিবার এক ঘোষণায় রানি মান্তফম্বির মৃত্যুর খবর নিশ্চিত করে। তাঁর বয়স হয়েছিল ৬৫ বছর।

রানির কার্যালয়ের প্রধানমন্ত্রী প্রিন্স ম্যাঙ্গোসথু বুথেলেজি এক বিবৃতিতে বলেন, ‘গভীর শোক ও বেদনার সঙ্গে রাজপরিবার ঘোষণা করছে যে জুলু জাতিগোষ্ঠীর দায়িত্বপ্রাপ্ত রানি সিওয়ে মান্তফম্বি দলামিনি জুলুর অপ্রত্যাশিত মৃত্যু হয়েছে।’ তিনি বলেন, তাঁর মৃত্যু রাজপরিবারকে হতবাক করে দিয়েছে। তাঁরা অত্যন্ত মর্মাহত।

বিজ্ঞাপন

রানির মৃত্যুর পর কে জুলু সিংহাসনে বসছেন, তা এখনো নিশ্চিত হওয়া যায়নি। দক্ষিণ আফ্রিকার জাতিগোষ্ঠীটির জনসংখ্যা ১ কোটি ১০ লাখের মতো। জুলু প্রধানমন্ত্রী মানুষকে আশ্বস্ত করেন যে জুলু জাতির নেতৃত্বে কোনো শূন্যতা থাকবে না।

স্থানীয় সংবাদমাধ্যম জানায়, অসুস্থ হয়ে গত সোমবার হাসপাতালে ভর্তি হন রানি মান্তফম্বি। তাঁর অসুস্থতা সম্পর্কে কিছু জানা যায়নি। রাজা গুডউইলের মৃত্যুর পর গত ২৪ মার্চ তিনি জুলুদের শাসক হন। টানা ৫০ বছর জুলু রাজ্য শাসন করেন রাজা গুডউইল। আফ্রিকাজুড়ে তিনিই সবচেয়ে বেশি সময় ধরে রাজা ছিলেন।

রাজা গুডউইলের স্ত্রীদের মধ্যে সবচেয়ে প্রভাবশালী ছিলেন রানি মান্তফম্বি। তিনি আট সন্তানের মা, যাদের মধ্যে পাঁচ ছেলে ও তিন মেয়ে। ধারণা করা হচ্ছে, রাজা গুডউইল ও রানি মান্তফম্বি দম্পতির বড় ছেলে পরবর্তী জুলু রাজা হিসেবে দায়িত্ব নিতে পারেন।

আফ্রিকা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন