বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

ইউনিসেফের এক বিবৃতিতে বলা হয়, এ মাসে ত্রিপোলিতে অভিবাসী ও আশ্রয়প্রার্থীদের মধ্যে প্রায় ৭৫১ নারী ও ২৫৫ শিশু গণগ্রেপ্তারের সময় ধরা পড়ে।

আটক ব্যক্তিদের মধ্যে সঙ্গীহীন ৫ অসহায় শিশু এবং কমপক্ষে ৩০ নবজাতক রয়েছে। ইউনিসেফ সতর্ক করে বলেছে, নারী ও শিশুরা নিরাপত্তা ও স্বাস্থ্যঝুঁকিতে রয়েছে। এ মাসের শুরুতে লিবিয়ার কর্তৃপক্ষ ত্রিপোলিতে অনিয়মিত অভিবাসীদের লক্ষ্য করে অভিযান পরিচালনা করে।

ডক্টরস উইদাউট বর্ডারসের তথ্য অনুযায়ী, কমপক্ষে পাঁচ হাজার অভিবাসী ও শরণার্থীকে সহিংসভাবে গ্রেপ্তার করা হয় এবং তাদের খারাপ পরিস্থিতিতে রাখা হয়। লিবিয়ায় জাতিসংঘের সহযোগিতা মিশনের তথ্য অনুযায়ী, ওই অভিযানে ১ জন নিহত ও ১৫ জন আহত হয়। কর্তৃপক্ষ একে সংগঠিত অপরাধ ও মাদক পাচারের বিরুদ্ধে অভিযান হিসেবে বর্ণনা করে।

লিবিয়ায় ইউনিসেফের ভারপ্রাপ্ত বিশেষ প্রতিনিধি ক্রিস্টিনা ব্রুগিওলো বলেন, ‘লিবিয়ায় অভিবাসী ও শরণার্থী শিশুরা নির্বিচারে আটকসহ শিশু অধিকার লঙ্ঘনের মুখোমুখি হচ্ছে। আমরা ধরে নিতে পারি, আটক প্রকৃত শিশুর সংখ্যা অনেক বেশি হতে পারে।’
জাতিসংঘের শরণার্থীবিষয়ক সংস্থা ইউএনএইচসিআর মঙ্গলবার বলেছে, লিবিয়ায় অভিবাসী ও আশ্রয়প্রার্থীদের অব্যাহত দুর্ভোগের বিষয়ে তারা অত্যন্ত উদ্বিগ্ন।

আফ্রিকা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন