default-image

লিবিয়া থেকে অবিলম্বে সব বিদেশি সৈন্য ও সামরিক কাজে নিয়োজিত কর্মী প্রত্যাহার করে নেওয়ার আহ্বান জানিয়েছে জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদ। সর্বসম্মতিক্রমে অনুমোদিত এক ঘোষণায় এ আহ্বান জানায় তারা। খবর এএফপির।

ইতিমধ্যে, গত বুধবার লিবিয়ার পার্লামেন্ট একটি নতুন ঐক্যের সরকারকে অনুমোদন দিয়েছে। পার্লামেন্টের এ পদক্ষেপকে স্বাগত জানিয়েছে নিরাপত্তা পরিষদ। অন্তর্বর্তীকালীন সরকার দেশটিতে আগামী ডিসেম্বর মাসে নির্বাচন আয়োজন করবে। সাবেক স্বৈরশাসক মোয়াম্মার আল গাদ্দাফিকে ক্ষমতা থেকে অপসারণের পর এক দশক ধরে চরম অরাজকতার মধ্যে আছে দেশটি।

নিরাপত্তা পরিষদের ১৫টি সদস্যদেশের সব কটির অনুমোদনক্রমে গৃহীত বিবৃতিতে বলা হয়, লিবিয়ায় যুদ্ধবিরতি প্রতিষ্ঠায় সম্পাদিত চুক্তিকে পুরোপুরিভাবে কার্যকর করতে সংশ্লিষ্ট সব পক্ষের প্রতি আহ্বান জানাচ্ছে পরিষদ। পাশাপাশি পরিষদ এই চুক্তির প্রতি শ্রদ্ধা প্রদর্শন ও এটির পূর্ণ বাস্তবায়নে সহায়তা দিতে সদস্যদেশগুলোকে আহ্বান জানাচ্ছে।

বিজ্ঞাপন

জাতিসংঘের তথ্য অনুযায়ী, লিবিয়ায় ২০২০ সালের শেষ নাগাদ প্রায় ২০ হাজার বিদেশি সেনা ও সামরিক কাজে নিয়োজিত অন্যান্য কর্মী মোতায়েন ছিলেন। এরপর থেকে এখন পর্যন্ত তাঁদের কাউকে প্রত্যাহার করে নেওয়া হয়নি।

গত বুধবার লিবিয়ার পার্লামেন্ট একটি নতুন ঐক্যের সরকারকে অনুমোদন দিয়েছে। পার্লামেন্টের এ পদক্ষেপকে স্বাগত জানিয়েছে নিরাপত্তা পরিষদ। অন্তর্বর্তীকালীন সরকার দেশটিতে আগামী ডিসেম্বর মাসে নির্বাচন আয়োজন করবে। সাবেক স্বৈরশাসক মোয়াম্মার আল গাদ্দাফিকে ক্ষমতা থেকে অপসারণের পর এক দশক ধরে চরম অরাজকতার মধ্যে আছে দেশটি।

নিরাপত্তা পরিষদের এই বিবৃতির আগে বিশেষজ্ঞরা লিবিয়ায় রাশিয়ার কর্মী, তুরস্কের সেনা এবং সিরিয়া, চাদ ও সুদানের সেনাদের উপস্থিতির সমালোচনা করেছিলেন।

আফ্রিকা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন