বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

মাদাগাস্কারের উত্তর-পূর্বাঞ্চলে যাত্রীবাহী একটি নৌকাডুবির পর মন্ত্রী সার্গে গেলেসহ ওই দল সেখানে চলমান উদ্ধার অভিযান পরিদর্শন করতে গিয়েছিল।

দেশটির কর্মকর্তারা স্থানীয় সময় গতকাল মঙ্গলবার জানিয়েছেন, নৌকাডুবির ওই ঘটনায় এখন পর্যন্ত অন্তত ৩৯ জনের মৃত্যুর কথা জানতে পেরেছেন তাঁরা।

টুইট করে নৌকাডুবির ঘটনায় প্রাণ হারানো মানুষদের জন্য শোক প্রকাশ করেছেন মাদাগাস্কারের প্রেসিডেন্ট আন্দ্রি রাজোয়েলিনা। একই সঙ্গে মন্ত্রী গেলে ও তাঁর সঙ্গে থাকা দুই কর্মকর্তার প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়েছেন তিনি।

সোমবারের দুর্ঘটনার কারণ সম্পর্কে এখনো নিশ্চিত হওয়া যায়নি। তবে ৫৭ বছর বয়সী মন্ত্রী গেলে দাবি করেছেন, হেলিকপ্টার বিধ্বস্তের পর তিনি ‘আগের রাত সাড়ে সাতটা থেকে পরদিন সকাল সাড়ে সাতটা পর্যন্ত সাঁতার কেটে’ সমুদ্রের তীরবর্তী শহর মাহাম্বোর উপকূলে পৌঁছাতে সক্ষম হন।

আহত হয়েছেন ও ঠান্ডা লেগেছে জানিয়ে মন্ত্রী বলেন, ‘আমি চাই, আপনারা এ ভিডিও সম্প্রচার করুন, যাতে আমার পরিবার, আমার সহকর্মীরা আর সরকারি সদস্যরা দেখতে পারেন যে আমি বেঁচে আছি ও ভালো আছি।’

দেশটির পুলিশপ্রধান জাফিসামবতরা র‌্যাভোয়েভি বার্তা সংস্থা এএফপিকে বলেন, ভেসে থাকার জন্য হেলিকপ্টারের একটি আসন ব্যবহার করেছিলেন মন্ত্রী গেলে।

জাফিসামবতরা র‌্যাভোয়েভি বলেন, ‘খেলাধুলায় বরাবর তিনি ভালো এবং ৩০ বছর বয়সী মন্ত্রী হিসেবেও সেটা ধরে রেখেছেন। বিপদে ধৈর্য ধরার দারুণ ক্ষমতা রয়েছে তাঁর।’

গত আগস্টে মন্ত্রী হিসেবে নিয়োগ পাওয়ার আগে তিন দশক ধরে মাদাগাস্কারের পুলিশ বাহিনীতে কর্মরত ছিলেন সার্গে গেলে।

আফ্রিকা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন