বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

প্রিন্স ফয়সাল বিন ফারহান আল সৌদ আরও বলেন, আফগানিস্তানে তালেবানের নতুন সরকারের সঙ্গে সৌদি আরবের এখনো কোনো যোগাযোগ হয়নি। নতুন এ সরকারকে স্বীকৃতি দেওয়ার আগে তাঁর দেশ অপেক্ষা ও পর্যবেক্ষণের নীতি গ্রহণ করবে।
প্রসঙ্গত, ১৯৯০–এর দশকে আফগানিস্তানে তালেবান সরকারকে স্বীকৃতি দেওয়া দেশগুলোর একটি সৌদি আরব।

সৌদি মন্ত্রী বলেন, ‘আমরা আফগানিস্তানে অন্তর্ভুক্তিমূলক সরকার প্রতিষ্ঠা এবং দেশটিতে শান্তি ও স্থিতিশীলতার নিশ্চয়তা চাই। ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে সম্প্রতি এক বৈঠকে আমি এ নিয়ে আলোচনা করেছি। আমরা এ বিষয়ে একমত হয়েছি।’

গত রোববার ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী এস জয়শঙ্করের সঙ্গে বৈঠক করেন সৌদি পররাষ্ট্রমন্ত্রী প্রিন্স ফয়সাল বিন ফারহান। এর আগের দিন গত শনিবার প্রিন্স ফয়সাল তিন দিনের সফরে ভারত এসে পৌঁছান।

এদিকে সাক্ষাৎকারে সৌদি পররাষ্ট্রমন্ত্রী ভারতে তাঁর দেশের বিনিয়োগ করার ব্যাপারে আগ্রহ প্রকাশ করেছেন। শিগগিরই দুই দেশের মধ্যে বিমান চলাচল আবার শুরু হবে বলেও জানান তিনি। করোনা মহামারির কারণে দুই দেশের মধ্যে বর্তমানে বিমান চলাচল বন্ধ রয়েছে।

বিতর্কিত কাশ্মীর ইস্যু নিয়ে সৌদি মন্ত্রী বলেন, ‘এটি ভারত ও পাকিস্তানের মধ্যকার দ্বিপক্ষীয় বিষয়। তাদের নিজেদের মধ্যে এ নিয়ে আলাপ–আলোচনা করে সমস্যার সমাধান করা উচিত।’

এশিয়া থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন