বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

আফগানিস্তানের ভারপ্রাপ্ত পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘আমরা কাল (মঙ্গলবার) ইইউ প্রতিনিধিদের সঙ্গে বৈঠক করব। আমরা অন্যান্য দেশের প্রতিনিধিদের সঙ্গে ইতিবাচক বৈঠক করছি।’

দোহায় গত শনি ও রোববার যুক্তরাষ্ট্রের জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তাদের সঙ্গে মুখোমুখি বৈঠক করেন তালেবানের প্রতিনিধিরা। সম্পর্কের নতুন অধ্যায় শুরু করতে এ বৈঠকের আয়োজন করা হয়। গত আগস্টে আফগানিস্তানের ক্ষমতা দখলের পর এই প্রথম তালেবান প্রতিনিধিদের সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রের জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তাদের সরাসরি বৈঠক হয়।

বৈঠক শেষে মার্কিন পররাষ্ট্র দপ্তরের মুখপাত্র নেড প্রাইস জানান, দোহায় তালেবান প্রতিনিধিদের সঙ্গে আলোচনায় নিরাপত্তা ও সন্ত্রাসবাদ নিয়ে উদ্বেগের বিষয়ে গুরুত্ব দেয় যুক্তরাষ্ট্র। যুক্তরাষ্ট্র, অন্যান্য দেশ ও আফগান নাগরিকদের নিরাপদে আফগানিস্তান ত্যাগ করার সুযোগ দেওয়ার বিষয়ে বৈঠকে আলোচনা হয়। একই সঙ্গে আফগান সমাজের সব ক্ষেত্রে নারীদের অর্থপূর্ণ অংশগ্রহণসহ মানবাধিকারের বিষয় আলোচনায় গুরুত্ব পায়।

নেড প্রাইস বলেন, যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিনিধিদলের সঙ্গে তালেবান প্রতিনিধিদলের আলোচনাটি অকপট ও পেশাদার ছিল। আলোচনায় যুক্তরাষ্ট্রের পক্ষ থেকে এ কথা আবারও বলা হয়েছে যে তালেবানকে শুধু কথা নয়, তার কাজ দিয়ে বিচার করা হবে।

দোহা বৈঠক সম্পর্কে আমির খান মুত্তাকি বলেন, তাঁরা আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের সঙ্গে যোগাযোগ রক্ষা করে চলতে চান। বিশেষ কোনো দেশকে আনুকূল্য প্রদান ও কোনো দেশের সঙ্গে বৈরিতার সম্পর্কে জড়ানোর নীতি তাঁরা গ্রহণ করবেন না।

এশিয়া থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন