বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

বার্তা সংস্থা এএফপির প্রতিবেদনে বলা হয়, গতকাল কাবুলের প্রাণকেন্দ্রে অবস্থিত একটি মসজিদের কাছে প্রায় ৩০ জন নারী জড়ো হয়ে বিক্ষোভ মিছিল শুরু করেন।

বিক্ষোভকারী নারীরা ‘বিচার চাই, বিচার চাই’ বলে স্লোগান দেন। কয়েক শ মিটার অগ্রসর হতেই মিছিলটি আটকে দেয় তালেবানের বাহিনী।

মিছিলের সংবাদ সংগ্রহ করতে সাংবাদিকদেরও বাধা দেয় তালেবান।

মিছিলে যোগ দিতে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছিল।

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে আয়োজকদের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, রহস্যজনকভাবে দেশের তরুণেরা, বিশেষ করে সাবেক আফগান সেনাদের হত্যা করা হচ্ছে। এই হত্যার প্রতিবাদে নারীরা বিক্ষোভ মিছিল করেন।

বিক্ষোভে অংশ নেওয়া নায়েরা কোহিস্তানি নামের এক নারী বলেন, ‘আমি বিশ্বকে বলতে চাই, তারা তালেবানকে হত্যা বন্ধ করতে বলুক। আমরা স্বাধীনতা চাই। আমরা বিচার চাই। আমরা মানবাধিকার চাই। নারীর অধিকার মানেই মানবাধিকার। আমাদের অবশ্যই অধিকার রক্ষা করতে হবে।’

বিক্ষোভ মিছিল চলাকালে একদল সাংবাদিককে আটক করে তালেবান। পরে অবশ্য তাঁদের ছেড়ে দেওয়া হয়।

তালেবান কিছু আলোকচিত্র সাংবাদিকের কাছ থেকে তাঁদের ব্যবহৃত বিভিন্ন সরঞ্জাম কেড়ে নেয়। তারা আলোকচিত্র সাংবাদিকদের ক্যামেরা থেকে ছবি মুছে দেয়। পরে ক্যামেরা ফিরিয়ে দেয়।

গত আগস্টে আফগানিস্তানের রাষ্ট্রক্ষমতা দখল করে তালেবান। তালেবান ক্ষমতায় আসার পর দেশটিতে ছোট-বড় বিক্ষোভ হয়ে আসছে।

এশিয়া থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন