বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

ইরান এ ঘটনার জন্য ইসরায়েলকে দায়ী করে আসছে। তবে এমন অভিযোগের বিষয়ে ইসরায়েল কোনো আনুষ্ঠানিক প্রতিক্রিয়া দেখায়নি। দেশটি অভিযোগ স্বীকারও করেনি, আবার অস্বীকারও করেনি। তবে ইসরায়েলের সরকারি রেডিও সার্ভিসে দেশটির গোয়েন্দা সূত্রের বরাত দিয়ে বলা হয়েছে, ইরানের পারমাণবিক স্থাপনায় গোয়েন্দা সংস্থা মোসাদ এ হামলা চালিয়েছে।

এ হামলা এমন সময় করা হয়, যার কিছুদিন পরই ২০১৫ সালের পরমাণু চুক্তি নিয়ে আলোচনায় বসার কথা ছিল ইরানের। যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য, ফ্রান্স, চীন, রাশিয়া ও জার্মানির সঙ্গে এ আলোচনা হওয়ার কথা ছিল ইরানের। ওই চুক্তির লক্ষ্য ছিল ইরানকে পারমাণবিক অস্ত্র তৈরি থেকে বিরত রাখা। তবে ইসরায়েল শুরু থেকেই এ চুক্তির বিরোধিতা করে আসছে।

এশিয়া থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন