আখুন্দজাদা সমাবেশে যোগ দেন শুক্রবার। সেখানে তাঁর দেওয়া ভাষণ আফগানিস্তানের সরকারি রেডিও চ্যানেলে সম্প্রচার করা হয়। এ ছাড়া ভাষণ নিয়ে প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে দেশটি সরকারি বার্তা সংস্থা ‘বাখতার’।

বাখতারের প্রতিবেদন অনুযায়ী, তালেবানের সর্বোচ্চ নেতা বলেন, ‘বিশ্ব কেন আমাদের বিষয়ে নাক গলাচ্ছে। তারা বলে, “তোমরা এটা কেন করছ না, ওটা কেন করছ না।” কেন বিশ্ব আমাদের কাজে হস্তক্ষেপ করছে।’

সমাবেশে গত মাসে আফগানিস্তানে ভয়াবহ ভূমিকম্পে হতাহতের জন্য প্রার্থনা করেন আখুন্দজাদা। এ সময় আফগানিস্তানের ক্ষমতা দখলের জন্য তালেবানের প্রশংসা করে তিনি বলেন, এটি শুধু আফগানিস্তান না, পাশাপাশি সারা বিশ্বের মুসলমানদের জন্য গর্বের বিষয়।

নারীদের নিয়ে তালেবানের আচরণ ঘিরে চলমান বিতর্কের বিষয়টি উঠে আসে তালেবানের এই নেতার ভাষণে। এ নিয়ে তিনি বলেন, ‘আমরা এখন একটি স্বাধীন দেশ। বিদেশিরা আমাদের নির্দেশ দিতে পারেন না। এটা আমাদের রাষ্ট্রব্যবস্থা। আর আমাদের নিজেদের সিদ্ধান্ত রয়েছে।’

শুক্রবার সমাবেশে ভাষণ দিয়েছেন তালেবানের উপপ্রধান ও আফগানিস্তানের বর্তমান সরকারের ভারপ্রাপ্ত স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সিরাজুদ্দিন হাক্কানিও। তিনি বলেন, আফগানিস্তানে অন্তর্ভুক্তিমূলক সরকার ও শিক্ষার দাবি তুলেছে বিশ্ব। তবে এই বিষয়গুলো বিবেচনার জন্য সময় প্রয়োজন।

এশিয়া থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন