ভিসা আবেদনের জন্য হাজার হাজার মানুষের ভিড়
ভিসা আবেদনের জন্য হাজার হাজার মানুষের ভিড় ছবি: রয়টার্স

আফগানিস্তানে পাকিস্তানের ভিসা আবেদন করতে গিয়ে ভিড়ের মধ্যে পদদলিত হয়ে ১১ নারীসহ অন্তত ১৫ জন নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন অনেকে। বুধবার দেশটির পূর্বাঞ্চলীয় প্রদেশ নানগারহারের রাজধানী জালালাবাদে এই ঘটনা ঘটে বলে আল–জাজিরার খবরে বলা হয়।

বিবিসির প্রতিবেদনে বলা হয়, কোভিড-১৯ মহামারির কারণে সাত মাস পর পাকিস্তানের ভিসা দেওয়া শুরু হয়েছে আফগানিস্তানে। মানুষের অধিক ভিড়ের আশঙ্কায় পাকিস্তান দূতাবাস থেকে পাঁচ কিলোমিটার দূরে একটি ফুটবল স্টেডিয়ামকে সাময়িক ভিসা আবেদনকেন্দ্র হিসেবে বাছাই করেছিল প্রাদেশিক সরকার। কিন্তু কাজের কাজ কিছুই হয়নি। ভোর থেকে হাজার হাজার মানুষ ওই মাঠে ভিড় জমাতে থাকেন।

বিজ্ঞাপন
default-image

জালালাবাদে অবস্থিত পাকিস্তান দূতাবাসের এক কর্মকর্তা বার্তা সংস্থা রয়টার্সকে বলেন, ভিসা আবেদনকারীরা দূতাবাসের কর্মকর্তাদের কাছ থেকে টোকেন সংরক্ষণ করতে দিয়ে ধাক্কাধাক্কি শুরু করেন। একপর্যায়ে এই ভিড় নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে যায় ও সেখানে পায়ের নিচে চাপা পড়ার ঘটনা ঘটে। নানগারহার সরকারের মুখপাত্র আতাউল্লাহ খোগয়ানি বার্তা সংস্থা এএফপিকে বলেন, দুর্ভাগ্যবশত হাজার হাজার লোক ওই মাঠে চলে এলে এমন দুর্ঘটনা ঘটে।

আফগানিস্তানে নিযুক্ত পাকিস্তানের রাষ্ট্রদূত মানসুর আহমেদ খান এই দুর্ঘটনায় গভীর দুঃখ প্রকাশ করেছেন। তিনি বলেন, এই ঘটনার পর এখানকার ভিসা আবেদনকারীদের সুবিধা বৃদ্ধির জন্য আফগান সরকারের সঙ্গে তাঁর দেশ কথা বলছে।

প্রতিবছর অসংখ্য আফগান নাগরিক চিকিৎসা, ভ্রমণ ও কাজের খোঁজে প্রতিবেশী দেশ পাকিস্তানে যান। এ ছাড়া আফগানিস্তানে চলমান সহিংসতা থেকে রক্ষা পেতেও অনেকে পাকিস্তান যান। দীর্ঘ সাত মাস ভিসা দেওয়া বন্ধ থাকায় পাকিস্তানে যেতে ইচ্ছুক মানুষের সংখ্যা বাড়তে থাকে।

মন্তব্য পড়ুন 0