default-image

যুক্তরাজ্য, যুক্তরাষ্ট্র ও অন্যান্য দেশে নির্বাসিত জীবনযাপনে থাকা সৌদি আরবের ভিন্নমতাবলম্বীরা গত বুধবার সরকারবিরোধী একটি রাজনৈতিক দল গঠনের কথা ঘোষণা করেছেন। দেশটিতে বাদশাহ সালমানের শাসনকালে কোনো সংগঠিত বিরোধী রাজনৈতিক দল গঠনের এটিই প্রথম ঘটনা।

পূর্ণ রাজতান্ত্রিক দেশ সৌদি আরবে বিরোধী রাজনৈতিক দল গঠন বা সরকারবিরোধী আন্দোলনের কোনো সুযোগ নেই। এরই মধ্যে দেশটির জাতীয় দিবস উদ্‌যাপনের দিন ন্যাশনাল অ্যাসেম্বলি পার্টি নামে নতুন এ দল গঠনের ঘোষণা এল। এটি এমন সময় গঠিত হলো যখন সেখানকার ভিন্নমতাবলম্বী ও বাক্‌স্বাধীনতার পক্ষে সোচ্চার কর্মীদের ওপর রাষ্ট্রীয় নিপীড়ন ক্রমেই বাড়ছে।

বিজ্ঞাপন

নতুন দল গঠনের উদ্যোক্তারা এক বিবৃতিতে বলেছেন, সৌদি আরবে একটি গণতান্ত্রিক সরকার প্রতিষ্ঠার লক্ষ্য নিয়ে তাঁরা ন্যাশনাল অ্যাসেম্বলি পার্টি নামে নতুন এই রাজনৈতিক দল গঠন করেছেন।

এই নতুন দল আরব বিশ্বের সবচেয়ে ক্ষমতাশালী সৌদি রাজপরিবারের কর্তৃত্বকে তেমন প্রভাবিত করতে পারবে না বলে মনে করা হচ্ছে। তবে এটি দেশটির ক্ষমতাসীন সরকারের জন্য নতুন চ্যালেঞ্জ ডেকে আনতে পারে।

বিজ্ঞাপন

বিরোধী রাজনৈতিক দল গঠনের ওই ঘোষণায় সৌদি কর্তৃপক্ষের তরফে তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়া জানা যায়নি। দলটির নেতৃত্বে থাকবেন লন্ডনভিত্তিক বিশিষ্ট মানবাধিকারকর্মী ইয়াহিয়া অসিরি। দলটির গুরুত্বপূর্ণ সদস্যদের মধ্যে রয়েছেন যুক্তরাজ্যপ্রবাসী শিক্ষাবিদ মাদাওয়ি আল–রশিদ, গবেষক সাঈদ বিন নাসের আল–ঘামদি, মানবাধিকারকর্মী আহমেদ আল–মাশিখস, যুক্তরাষ্ট্রপ্রবাসী আবদুল্লাহ আলাউধ ও কানাডাপ্রবাসী ওমর আবদুল আজিজ।

দলের সাধারণ সম্পাদক অসিরি বার্তা সংস্থা এএফপিকে বলেন, ‘আমরা খুব গুরুত্বপূর্ণ এক সময়ে এই নতুন দলের যাত্রার কথা ঘোষণা করছি। আমাদের দেশকে রক্ষা করা, দেশের জন্য গণতান্ত্রিক ভবিষ্যৎ গঠন করা ও জনগণের আকাঙ্ক্ষায় সাড়া দেওয়ার চেষ্টায় এই দলের যাত্রা শুরু হয়েছে।’

মন্তব্য পড়ুন 0