বিজ্ঞাপন
default-image

সু চির রাজনৈতিক অর্জন সম্পর্কে সাক্ষাৎকারে সেনাপ্রধানকে প্রশ্ন করা হয়। জবাবে তিনি বলেন, ‘সংক্ষেপে, তিনি (সু চি) যা কিছু করতে পারেন, তা করেছেন।’

সেনা অভ্যুত্থানের জেরে গৃহবন্দী হওয়ার পর এখন পর্যন্ত সু চিকে প্রকাশ্যে দেখা যায়নি। তাঁর বিরুদ্ধে একাধিক মামলা দিয়েছে জান্তা সরকার। এসব মামলার মধ্যে ঔপনিবেশিক আমলের অফিশিয়াল সিক্রেটস অ্যাক্টের মামলাও রয়েছে।

গৃহবন্দী হওয়ার পর আগামীকাল সোমবার প্রথমবারের মতো সশরীরে আদালতে হাজির হতে পারেন সু চি। আগে তাঁকে মাত্র একবার ভিডিও লিংকের মাধ্যমে আদালতে উপস্থাপন করা হয়েছিল। তাঁকে এখন পর্যন্ত তাঁর আইনজীবীদের সঙ্গে সরাসরি কথা বলতে দেওয়া হয়নি।

মিয়ানমারে গত বছরের নভেম্বরে সাধারণ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। নির্বাচনে তৎকালীন ক্ষমতাসীন দল সু চির দল ন্যাশনাল লিগ ফর ডেমোক্রেসি (এনএলডি) বিপুল জয় পায়। নির্বাচন স্বচ্ছ ও নিরপেক্ষ হয়েছে বলে দেশি-বিদেশি পর্যবেক্ষক সংস্থা অভিমত দেয়। তবে এই নির্বাচনে কারচুপি-জালিয়াতির অভিযোগ আনে দেশটির সেনাবাহিনী। সেনাবাহিনীর এই অভিযোগ নাকচ করে তৎকালীন নির্বাচন কমিশন।

নির্বাচনে কথিত জালিয়াতির অজুহাত তুলে দেশটির সেনাবাহিনী গত ১ ফেব্রুয়ারি সামরিক অভ্যুত্থান করে। তারা সু চির নির্বাচিত সরকার উৎখাতের মাধ্যমে দেশটির ক্ষমতা দখল করে। একই সঙ্গে সু চিসহ দেশটির বেসামরিক নেতাদের গ্রেপ্তার করে। মিয়ানমারের সেনাবাহিনী দেশটিতে জরুরি অবস্থা জারি করে।

সেনা অভ্যুত্থানের পরপরই দেশটির গণতন্ত্রপন্থীরা বিক্ষোভ শুরু করেন। সেনাশাসনবিরোধী এই বিক্ষোভে জান্তার নিরাপত্তা বাহিনীর হাতে এখন পর্যন্ত আট শতাধিক বিক্ষোভকারী নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন অনেকে। এ ছাড়া হাজারো বিক্ষোভকারীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

মিয়ানমারের জান্তা নিযুক্ত নির্বাচন কমিশন এনএলডির নিবন্ধন বিলুপ্ত করতে চায়। নির্বাচনে জালিয়াতির অভিযোগে এনএলডির বিরুদ্ধে কমিশন এমন ব্যবস্থা নিতে চায়। এক নির্বাচন কমিশনারের উদ্ধৃতির বরাত দিয়ে মিয়ানমার নাউ সংবাদমাধ্যম গত শুক্রবার এমন খবর দিয়েছে।

মিয়ানমারের সেনাপ্রধান তাঁর সাক্ষাৎকারে আবারও দাবি করেন, গত বছরের সাধারণ নির্বাচনে এনএলডি জালিয়াতি করেছে।

মিয়ানমারে গণতন্ত্র পুনর্বহাল ও সু চিসহ গ্রেপ্তার বেসামরিক ব্যক্তিদের মুক্তি দিতে দেশটির জান্তার ওপর আন্তর্জাতিক চাপ বহাল রয়েছে। তবে দেশটির সামরিক জান্তার এখন পর্যন্ত এই আহ্বানের প্রতি কর্ণপাতের কোনো আলামত দেখা যাচ্ছে না।

এশিয়া থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন