ইউনাইটেড প্রেস ইন্টারন্যাশনাল (ইউপিআই) গত মঙ্গলবার এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, ইয়াশ জন্মগতভাবে ভারতীয়। তবে বসবাস করেন দুবাইয়ে। ২১ বছর বয়সী ইয়াশ পেশায় যোগব্যায়ামের শিক্ষক। দুবাইয়ে তিনি বিশ্ব রেকর্ড গড়ার জন্য বিশেষ একটি আসনে যোগব্যায়ামে অংশ নেন। ওই আসন স্করপিয়ন পোজ (বৃশ্চিক আসন) নামে পরিচিত। এতে দুই হাতে ভর দিয়ে, দুই পা ভাঁজ করে থাকতে হয়। আসনটি করার সময় দেখতে অনেকটা বৃশ্চিকের মতো লাগে বলে এটির এমন নাম দেওয়া হয়েছে।

টানা ২৯ মিনিট ৪ সেকেন্ড দুই হাতে ভর দিয়ে, দুই পা ভাঁজ করে থেকে রেকর্ড গড়েন ইয়াশ। গিনেস কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, ইয়াশের আগে আর কেউ এত দীর্ঘ সময় এই আসনে যোগব্যায়াম করেননি। আগে বৃশ্চিক আসনে যোগব্যায়াম করার রেকর্ডটি ছিল ৪ মিনিট ৪৭ সেকেন্ডের।

বিশেষ এই আসনে যোগব্যায়াম করে বিশ্ব রেকর্ড গড়ার জন্য ইয়াশকে প্রায় দুই বছর অনুশীলন করতে হয়েছে। হাত, পা, মাথা ও শরীরের ভারসাম্য রক্ষার প্রশিক্ষণ নিতে হয়েছে। এরপরই পাওয়া গেছে চূড়ান্ত সফলতা। সংবাদমাধ্যমকে ইয়াশ বলেন, বৃশ্চিক আসনে যোগব্যায়াম করার জন্য সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ হলো শারীরিক স্থিতিস্থাপকতা, আত্মবিশ্বাস ও মানসিক স্থিরতা। না হলে আপনি দীর্ঘ সময় এভাবে হাতের ওপর ভর দিয়ে থাকতে পারবেন না।

মাত্র আট বছর বয়সে যোগব্যায়ামের অনুশীলন শুরু করেন ইয়াশ। ২০১৭ সালে যোগব্যায়ামের শিক্ষক হিসেবে আনুষ্ঠানিক সনদ পান তিনি।

এশিয়া থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন