উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে ভারতীয় প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিং বলেন, শ্রীলঙ্কা, নেপাল, ভুটান, মিয়ানমার, মালদ্বীপ যে দেশই হোক না কেন সব প্রতিবেশী দেশের সঙ্গে বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক বজায় রেখেছে তাঁর দেশ। এ বন্ধন অটুট রাখতে বিভিন্ন ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে।

একপর্যায়ে বাংলাদেশের প্রশংসা করে রাজনাথ সিং বলেন, দেশটি (বাংলাদেশ) যেভাবে সব ক্ষেত্রে সমৃদ্ধি অর্জন করছে, নিশ্চিতভাবেই এটি ভবিষ্যতে উন্নয়নের নতুন উচ্চতায় পৌঁছে যাবে। প্রতিবেশী দেশ হিসেবে ভারত খুব খুশি যে বাংলাদেশ সব ক্ষেত্রে অগ্রগতি অর্জন করছে; ধর্মীয় প্রভাব ও সংকীর্ণতাকে পেছনে ফেলে দ্রুত উন্নয়নের পথে এগিয়ে যাচ্ছে এবং আধুনিকতা, ধর্ম নিরপেক্ষতা ও নারীর ক্ষমতায়নের জন্য পদক্ষেপ নিচ্ছে।

রাজনাথ মনে করেন বাংলাদেশের আর্থসামাজিক উন্নয়নের মডেলটি বিশ্বের অনেক দেশের জন্য দৃষ্টান্ত।

পাকিস্তানের নাম উল্লেখ না করে রাজনাথ সিং বলেন, একটি প্রতিবেশী দেশ আছে যারা পুরোপুরি ধর্মীয় গোঁড়ামিতে আচ্ছন্ন, তারা নিজেরাই এর জন্য ভুগছে। সঙ্গে দারিদ্র্যের প্রভাবতো আছেই। ভারতের সঙ্গে বিদ্বেষ না দেখিয়ে বাংলাদেশ থেকে দেশটির অনেক কিছু শেখা উচিত।

রাজনাথ সিং আরও বলেন, স্বাস্থ্য, শিক্ষা, সংযোগ ও নিরাপত্তা খাতে ভারত সব সময়ই বাংলাদেশের পাশে আছে এবং ভবিষ্যতেও থাকবে।

এশিয়া থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন