প্রাথমিকভাবে বলা হয়েছিল, তিন বন্দুকধারী এ হামলা চালিয়েছেন। হামলাকারীদের মধ্যে দুজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। একজন পলাতক।

বিবিসি বলছে, পরে স্থানীয় বিচার বিভাগীয় প্রধান বলেন, এ হামলায় একজন সন্ত্রাসী জড়িত।

এখন দেশটির রাষ্ট্রীয় টেলিভিশন বলছে, এ হামলার ঘটনায় এক ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

হামলার ঘটনায় দ্রুত ও কঠোর ব্যবস্থার অঙ্গীকার করেছেন ইরানের প্রেসিডেন্ট ইব্রাহিম রাইসি।

রাইসি বলেছেন, এ অপরাধের জবাব নিশ্চিতভাবে দেওয়া হবে। যাঁরা হামলার পরিকল্পনা করেছেন, হামলা চালিয়েছেন, তাঁদের সমুচিত শিক্ষা দেবে ইরানের নিরাপত্তা ও আইন প্রয়োগকারী বাহিনী।