প্রধানমন্ত্রী ইসমাইল সাবরি ইয়াকুবের দল ইউনাইটেড মালয়জ ন্যাশনাল অর্গানাইজেশনের (ইউএমএনও) নেতৃত্বাধীন ক্ষমতাসীন জোট বারিসান ন্যাসিওনাল (বিএন) নির্বাচনে বড় ধরনের ধাক্কা খেয়েছে।

জোটটি মাত্র ৩০টি আসনে জয় পেয়েছে। সরকার গঠনের জন্য সংখ্যাগরিষ্ঠতা নিশ্চিত করতে ২২২টি আসনের মধ্যে ১১২টিতে জয় নিশ্চিত করতে হবে। সে সংখ্যাগরিষ্ঠতা কোনো দল বা জোটই অর্জন করতে পারেনি।

সরকার গঠনের জন্য এখন জোটগুলোকে অন্য দলের সমর্থন জোগাড় করতে হবে। তবে আনোয়ার ইব্রাহিম ও মুহিউদ্দিন ইয়াসিন দুজনই দাবি করেন সরকার গঠন করার মতো যথেষ্ট সমর্থন তাঁদের জোটের পক্ষে আছে। তবে কোন কোন দল তাঁদের জোটে যোগ দিচ্ছে, তা স্পষ্ট করে বলেননি তাঁরা। আজ জোট গঠন নিয়ে আলোচনা চলছে।

এদিকে মালয়েশিয়ার সাবেক প্রধানমন্ত্রী ৯৭ বছর বয়সী মাহাথির মোহাম্মদ গতকালের নির্বাচনে নিজের আসনে হেরে গেছেন। এ পরাজয়কে তাঁর সাত দশকের রাজনৈতিক জীবনের ইতি হিসেবে দেখা হচ্ছে।

গত কয়েক বছরের মধ্যে তিনজন প্রধানমন্ত্রী পেয়েছে মালয়েশিয়া। সম্প্রতি দেশটিতে ‘স্থিতিশীলতা’ ফেরানোর চেষ্টার অংশ হিসেবে প্রধানমন্ত্রী ইসমাইল সাবরি ইয়াকুব আগাম নির্বাচনের ডাক দেন। সাবরি ইয়াকুব ও মুহিউদ্দিনের জোট ক্ষমতাসীন জোট সরকারেরই অংশ। কিন্তু নির্বাচনে তাঁরা আলাদাভাবে লড়েছেন।