নজিরবিহীন অর্থনৈতিক সংকট ও গণ–আন্দোলনের মধ্যে গত মঙ্গলবার রাতে সামরিক বিমানে দেশ ছেড়ে মালদ্বীপে পালিয়ে যান শ্রীলঙ্কার প্রেসিডেন্ট গোতাবায়া রাজাপক্ষে।

পরদিন গতকাল দেশটির স্পিকার শ্রীলঙ্কার ভারপ্রাপ্ত প্রেসিডেন্ট হিসেবে প্রধানমন্ত্রী রনিল বিক্রমাসিংহের নাম ঘোষণা করেন। এই ঘোষণায় রাজধানী কলম্বোসহ দেশজুড়ে বিক্ষোভ আরও জোরালো হয়।

পরিস্থিতি সামাল দিতে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় থেকে শ্রীলঙ্কায় জরুরি অবস্থা জারি করা হয়। এ ছাড়া সারা দেশে আজ বৃহস্পতিবার সকাল পর্যন্ত কারফিউ জারি করা হয়।

ক্ষুব্ধ বিক্ষোভকারীরা গতকাল প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে হানা দেন। সেনাবাহিনী ও পুলিশের নিরাপত্তাবেষ্টনী ভেঙে তাঁরা প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে ঢুকে পড়েন। এ সময় পুলিশের সঙ্গে তাঁদের সংঘর্ষ হয়। বিক্ষোভকারীদের ছত্রভঙ্গ করতে কাঁদানে গ্যাসের শেল নিক্ষেপ করে পুলিশ।

কিন্তু বিক্ষোভকারীদের দমানো সম্ভব হয়নি। তাঁরা একপর্যায়ে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় দখলে নেন। অবিলম্বে রনিল বিক্রমাসিংহের পদত্যাগ দাবি করছেন তাঁরা।

এশিয়া থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন