আগামী ২৯ নভেম্বর পাকিস্তানের সেনাপ্রধান জেনারেল কামার জাভেদ বাজওয়ার বর্ধিত মেয়াদও শেষ হবে। শাহবাজ শরিফ আবারও বলে দিয়েছেন, পরবর্তী সেনাপ্রধান নিয়োগের কাজটি সংবিধানের সঙ্গে সংগতি বজায় রেখে করা হবে।

শাহবাজ শরিফের ভাষ্যমতে, পরবর্তী সেনাপ্রধান নিয়োগে ইমরান খান তাঁর কাছে তিনটি নাম পাঠানোর প্রস্তাব দিয়েছেন এবং তাঁকেও (শাহবাজ) তিনটি নাম সুপারিশ করতে বলেছেন। ইমরান তাঁকে বলেছেন, ‘চলুন একসঙ্গে সেনাপ্রধান নিয়োগ দিই।’

শাহবাজ বলেছেন, ইমরানের এ প্রস্তাব তিনি প্রত্যাখ্যান করেছেন। ‘ইমরান খানকে আমি একটি বার্তা পাঠিয়েছি। বলেছি এটি সাংবিধানিক একটি দায়িত্ব যা প্রধানমন্ত্রীকে সম্পাদন করতে হয়।’ বলেন শাহবাজ।

পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী আরও বলেছেন ইমরানের এ প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করলেও তাঁর (ইমরান) সঙ্গে গণতন্ত্র ও অর্থনৈতিক সনদ নির্ধারণ নিয়ে (চার্টার অব ডেমোক্রেসি অ্যান্ড চার্টার অব ইকোনমি) নিয়ে আলোচনার প্রস্তাব দিয়েছেন।

এদিকে নির্বাচনের দাবিতে রাজধানী ইসলামাবাদ অভিমুখে পাকিস্তান তেহরিক-ই-ইনসাফ (পিটিআই)-এর দ্বিতীয় লংমার্চের তৃতীয় দিন আজ। গত শুক্রবার লাহোরে এ কর্মসূচির উদ্বোধন করেন দলের চেয়ারম্যান ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। আজ মুরিদকে থেকে লং মার্চের যাত্রা শুরু হচ্ছে।