স্থানীয় পুলিশের এক মুখপাত্র সংবাদমাধ্যমকে বলেছেন, তাঁদের ধারণা, ক্যাঙারুর হামলায় ওই ব্যক্তি আহত হয়েছেন। অস্ট্রেলিয়ায় প্রায় পাঁচ কোটি ক্যাঙারুর আবাস। প্রতিটি ক্যাঙারু সর্বোচ্চ সাড়ে ৬ ফুট পর্যন্ত লম্বা হয়। ১৯৩৬ সালের পর এ ধরনের প্রাণঘাতী হামলা এটাই প্রথম বলে জানিয়েছে পুলিশ।

ক্যাঙারু বিশেষজ্ঞ ও মেলবোর্ন ইউনিভার্সিটির সহযোগী অধ্যাপক জেরেমি কুলসন অস্ট্রেলিয়ান ব্রডকাস্টিং করপোরেশনকে বলেন, কাঙারুর বেশ কিছু ‘অস্ত্র’ আছে। এর মধ্যে রয়েছে, ধারালো দাঁত ও নখ এবং শক্তিশালী পা। তিনি আরও বলেন, তারা যদি কোনো কারণে উদ্বিগ্ন হয় কিংবা দুশ্চিন্তায় থাকে, তাহলে তারা ভয়ংকর হয়ে উঠতে পারে।

এর আগে গত জুলাই মাসে অস্ট্রেলিয়ার কুইন্সল্যান্ডে এক নারী (৬৭) হাঁটতে গেলে তাঁর ওপর হামলা চালায় একটি ক্যাঙারু। এতে ওই নারীর পা ভেঙে গেলে তিনি সেখানেই পড়ে থাকেন। গত মার্চে নিউ সাউথ ওয়েলসে ক্যাঙারুর হামলায় মাথায় গুরুতর আঘাত পায় তিন বছরের এক শিশু।

এশিয়া থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন