ফনসেকা বলেন, ‘শ্রীলঙ্কান পদুজানা পেরামানা দলের বড় একটি অংশসহ কয়েকটি দলের এমপিরা আমাকে প্রেসিডেন্ট পদে লড়ার অনুরোধ করেছেন। নির্বাচিত হলে আমি প্রেসিডেন্ট পদে দায়িত্ব নিতে রাজি।’

এ সময় সাংবাদিকেরা তাঁর কাছে জানতে চান, প্রেসিডেন্ট পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করার বিষয়টি তাঁর নেতা সাজিথ প্রেমাদাসা জানেন কিনা? জবাবে শরৎ ফনসেকা বলেন, ‘এটা আমার ব্যক্তিগত বিষয়, নেতার কাছে বলার প্রয়োজন নেই।’

গত মঙ্গলবার শ্রীলঙ্কার প্রধান বিরোধী দল এসজেবির নেতা সাজিথ প্রেমাদাসা বলেছিলেন, গোতাবায়া রাজাপক্ষে পদত্যাগ করলে তিনি প্রেসিডেন্ট পদে লড়তে চান। ২০১৯ সালের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে অংশ নিয়ে হেরেছিলেন সাজিথ প্রেমাদাসা। এখন প্রেসিডেন্ট পদ শূন্য হলে তাঁকে সেই পদে জয়ী হতে হলে শাসক জোটের এমপিদের সমর্থন দরকার পড়বে।

সংবাদ সম্মেলনে, বিক্ষোভকারীদের উদ্দেশে বক্তব্য দেন শরৎ ফনসেকা। এ সময় দখলকৃত রাষ্ট্রীয় ভবন তাড়াহুড়া করে ছেড়ে না যেতে বিক্ষোভাকারীদের প্রতি আহ্বান জানান তিনি।

শরৎ ফনসেকা সেনাপ্রধানের দায়িত্ব ছাড়ার পর রাজনীতিতে যোগ দেন। ২০১০ সালে প্রেসিডেন্ট মাহিন্দা রাজাপক্ষের বিরুদ্ধে নির্বাচন করে পরাজিত হন তিনি।

এশিয়া থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন