বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

ওয়াং ই বলেন, স্বাধীনতাকামী বাহিনীকে উসকে দিয়ে তাইওয়ানকে ভয়ংকর ঝুঁকির মুখে ফেলছে যুক্তরাষ্ট্র। আর এই কাজ করার জন্য চড়া মূল্য দিতে হবে যুক্তরাষ্ট্রকে।

চীনের পররাষ্ট্র মন্ত্রী বলেন, চীনের ভূখণ্ডের সঙ্গে একীভূত হওয়া ছাড়া তাইওয়ানের জন্য আর কোনো পথ খোলা নেই।

তাইওয়ান ইস্যুতে চীন ও যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যে উত্তেজনা নতুন করে বাড়ছে। যুক্তরাষ্ট্র চীনের ওপর চাপ প্রয়োগে যে ইস্যুগুলো সামনে আনছে তার মধ্যে অন্যতম তাইওয়ান। এ ছাড়া উইঘুর ইস্যুকে সামনে এনে চীন জিনজিয়াং অঞ্চল থেকে পণ্য আমদানিতে নিষেধাজ্ঞাও আরোপ করেছে যুক্তরাষ্ট্র।

তাইওয়ানকে নিজেদের অংশ মনে করে চীন। দেশটির পক্ষ থেকে বিভিন্ন সময় বলা হয়েছে, প্রয়োজন হলে এই ভূখণ্ডের নিয়ন্ত্রণ নেবে তারা। আর নিজেদের স্বাধীন দেশ হিসেবে দাবি করে তাইওয়ান। এই স্বাধীনতা ও গণতান্ত্রিক চর্চার রক্ষায় যেকোনো কিছু করতে প্রস্তুত তারা।

চীন থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন