বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

উহান কর্তৃপক্ষ বলছে, উহানের হিমায়িত মাংস বিক্রির সঙ্গে সংশ্লিষ্ট ১০০ জনের বেশি কর্মীকে পরীক্ষা করা হয়েছে। এর বাইরে ২০০ পরিবেশগত নমুনাও পরীক্ষা করা হয়েছে।

এ বছরের শুরু থেকেই করোনাভাইরাসের বিস্তার ঠেকাতে ব্যাপক কর্মসূচি গ্রহণ করে চীন। জুন মাসের শেষ দিকে এসে আমদানি করা খাবারেও ভাইরাস পরীক্ষা শুরু করে। গত সেপ্টেম্বরে ৩০ লাখ নমুনা পরীক্ষা করে ২২ জনের করোনা শনাক্ত হয় দেশটিতে। সম্প্রতি দেশটির বন্দর এলাকায় করোনার সংক্রমণ বাড়ছে বলে আমদানি করা খাবার পরীক্ষা ও জীবাণুমুক্তকরণ কর্মসূচি বাড়িয়েছে।

এ সপ্তাহে দেশটিতে আর্জেন্টিনা থেকে আমদানি করা খাবারের নমুনাতেও করোনাভাইরাস সংক্রমণ চিহ্নিত হয়।

চীন বিশ্বের শীর্ষ গরুর মাংসের ক্রেতা। ব্রাজিল ও আর্জেন্টিনা দেশটিতে বৃহত্তম মাংস সরবরাহকারী।

চীন থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন