default-image

করোনাভাইরাস নিয়ন্ত্রণে দেশজুড়ে নানা কর্মসূচি চালাচ্ছে চীন। তারই অংশ হিসেবে আমদানি করা হিমায়িত খাবারও পরীক্ষার আওতায় এনেছে দেশটি। আজ শুক্রবার চীনের উহান সিটি কর্তৃপক্ষ বলছে, ব্রাজিল থেকে আসা হিমায়িত মাংসের প্যাকেটে তারা করোনাভাইরাস শনাক্ত করেছে। বার্তা সংস্থা রয়টার্সের এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

উহান মিউনিসিপ্যাল হেলথ কমিশন তাদের ওয়েবসাইটে দেওয়া এক বিবৃতিতে বলেছে, ব্রাজিল থেকে আসা হাড়ছাড়া হিমায়িত গরুর মাংসের প্যাকেটের বাইরের অংশে তারা করোনার উপস্থিতি দেখতে পেয়েছে। মোট তিনটি নমুনা পজিটিভ পেয়েছে তারা।

গত ৭ আগস্ট দেশটির কিংদাও বন্দর দিয়ে এ মাংস দেশটিতে আসে। ১৭ আগস্ট তা উহানে পৌঁছায়। এ মাংস এত দিন হিমাগারে সংরক্ষিত ছিল।

গত বছরের ডিসেম্বরে চীনের এই উহান শহরের একটি বাজার থেকেই বিশ্বজুড়ে করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়ে।

বিজ্ঞাপন

উহান কর্তৃপক্ষ বলছে, উহানের হিমায়িত মাংস বিক্রির সঙ্গে সংশ্লিষ্ট ১০০ জনের বেশি কর্মীকে পরীক্ষা করা হয়েছে। এর বাইরে ২০০ পরিবেশগত নমুনাও পরীক্ষা করা হয়েছে।

এ বছরের শুরু থেকেই করোনাভাইরাসের বিস্তার ঠেকাতে ব্যাপক কর্মসূচি গ্রহণ করে চীন। জুন মাসের শেষ দিকে এসে আমদানি করা খাবারেও ভাইরাস পরীক্ষা শুরু করে। গত সেপ্টেম্বরে ৩০ লাখ নমুনা পরীক্ষা করে ২২ জনের করোনা শনাক্ত হয় দেশটিতে। সম্প্রতি দেশটির বন্দর এলাকায় করোনার সংক্রমণ বাড়ছে বলে আমদানি করা খাবার পরীক্ষা ও জীবাণুমুক্তকরণ কর্মসূচি বাড়িয়েছে।

এ সপ্তাহে দেশটিতে আর্জেন্টিনা থেকে আমদানি করা খাবারের নমুনাতেও করোনাভাইরাস সংক্রমণ চিহ্নিত হয়।

চীন বিশ্বের শীর্ষ গরুর মাংসের ক্রেতা। ব্রাজিল ও আর্জেন্টিনা দেশটিতে বৃহত্তম মাংস সরবরাহকারী।

মন্তব্য পড়ুন 0