ইনস্টাগ্রামে নিজের অ্যাকাউন্টে একটি ভিডিও পোস্ট করেছেন মানাসা। এতে তাঁকে খাবারের প্যাকেট হাতে বরফে ঢাকা অ্যান্টার্কটিকায় দাঁড়িয়ে থাকতে দেখা যায়। ক্যাপশনে মানাসা লিখেছেন, ‘আজকে আমার জীবনের বিশেষ একটি দিন। আমি সিঙ্গাপুর থেকে যাত্রা করে অ্যান্টার্কটিকায় খাবার সরবরাহ করতে এসেছি।’

ওই পোস্টে মানাসা জানান, সিঙ্গাপুর থেকে রওনা হয়ে প্রথমে জার্মানির হামবুর্গে যান। সেখান থেকে যান আর্জেন্টিনার রাজধানী বুয়েনস এইরেস।এরপর দেশটির দক্ষিণাঞ্চলীয় উশুইয়া শহর হয়ে অ্যান্টার্কটিকায় পৌঁছান মানাসা। ক্যাপশনে মানাসা লিখেছেন, এই যাত্রায় তাঁকে ৩০ হাজার কিলোমিটারের বেশি পথ পাড়ি দিতে হয়েছে।

চারটি মহাদেশ পেরিয়ে তিনি অ্যান্টার্কটিকায় গিয়ে পৌঁছান। বিশ্বে সবচেয়ে দীর্ঘ পথ পাড়ি দিয়ে খাবার সরবরাহের ঘটনা বলা হচ্ছে এটাকে।

অ্যান্টার্কটিকা যাত্রায় মানাসাকে সহায়তা করেছে খাবার সরবরাহকারী প্রতিষ্ঠান ফুড পান্ডা। মানাসা এক সাক্ষাৎকারে জানান, বরফে ঢাকা অ্যান্টার্কটিকায় যাওয়ার ইচ্ছা তাঁর অনেক আগে থেকেই ছিল। এ জন্য ২০২১ সালে তিনি তহবিল সংগ্রহের চেষ্টা করেছিলেন। কিন্তু খুব একটা সফল হননি। তবে আশা ছাড়েননি মানাসা। অবশেষে এক মাস আগে ফুড পান্ডার পক্ষ থেকে তাঁর সঙ্গে যোগাযোগ করা হয়। অর্থায়নে রাজি হয় প্রতিষ্ঠানটি। এরপরই মানাসার অ্যান্টার্কটিকা যাত্রার স্বপ্নপূরণ হয়।