বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

যুক্তরাষ্ট্রে নিযুক্ত রাশিয়ার রাষ্ট্রদূত আনাতোলি আন্তোনভ রশিয়া ২৪টিভি চ্যানেলকে বলেছেন, ইউক্রেনে সামরিক সরঞ্জাম সরবরাহের কারণে সংঘাত বেড়েছে। এটা এখন ৬১তম দিনে গড়িয়েছে।

ইউক্রেনে অস্ত্র সরবরাহের বিষয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করে ওয়াশিংটনে একটি কূটনৈতিক পত্র পাঠিয়েছে মস্কো। সেটির উল্লেখ করে আন্তোনভ বলেন, ‘যুক্তরাষ্ট্র যখন অস্ত্র ঢোকাচ্ছে, সে সময় আমরা এ পরিস্থিতি কতটা অগ্রহণযোগ্য, তা গুরুত্বের সঙ্গে তুলে ধরেছিলাম। আমরা এটার অবসান চেয়েছিলাম। কিন্তু আমেরিকানরা যা করছে, তা হলো আগুনে ঘি ঢালা। আমি শুধু তাদের সেই চেষ্টাই দেখছি, যাতে পরিস্থিতি আরও খারাপের দিকে যায়, আরও ক্ষয়ক্ষতি হয়।’

ইউক্রেনে রাশিয়া হামলা শুরু করার পর থেকেই কিয়েভকে অস্ত্রসহায়তা দিয়ে আসছে যুক্তরাষ্ট্র ও ইউরোপের দেশগুলো। এসব অস্ত্রের বেশির ভাগই বিমান ও ট্যাংকবিধ্বংসী ক্ষেপণাস্ত্র। এর মধ্যে গত বৃহস্পতিবার ইউক্রেনকে আরও ৮০ কোটি ডলারের সামরিক সহায়তা দেওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। ইউক্রেনের পূর্বাঞ্চলের দনবাস এলাকায় রাশিয়া নতুন করে হামলা শুরুর পর এ ঘোষণা দেন তিনি।

ইউরোপ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন