বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

স্থানীয় সময় আজ বৃহস্পতিবার পশ্চিমা দেশগুলোর উদ্দেশে এমন হুঁশিয়ারি দেন ক্রেমলিনের মুখপাত্র। এর আগে ইউক্রেনের পাশে দাঁড়াতে দেশটির মিত্রদের সামরিক সরঞ্জামের উৎপাদন বাড়ানোর ওপর জোর দিতে বলেন যুক্তরাজ্যের পররাষ্ট্রমন্ত্রী লিজ ট্রুস।

সাংবাদিকদের দিমিত্রি পেসকভ বলেন, ইউক্রেনে বিভিন্ন ধরনের ভারী অস্ত্রসহ সামরিক সরঞ্জাম সরবরাহের এই প্রবণতা ইউরোপের নিরাপত্তার জন্য হুমকি। এই পদক্ষেপ উপমহাদেশে অস্থিতিশীলতা উসকে দিচ্ছে।

এদিকে রাশিয়ায় হামলা চালাতে পশ্চিমা দেশগুলো ইউক্রেনকে খোলাখুলিভাবে উৎসাহ দিচ্ছে বলে অভিযোগ করেছেন রুশ পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র মারিয়া জাখারোভা। হুঁশিয়ারি দিয়ে তিনি বলেন, রাশিয়ার ভূখণ্ডে চালানো হামলার জবাব দেওয়া হবে বলে মস্কো যে প্রতিশ্রুতি দিয়েছে, তা পশ্চিমাদের গুরুত্বের সঙ্গে মাথায় নেওয়া উচিত।

গতকাল বুধবার রাশিয়ার দক্ষিণাঞ্চলে একাধিক বিস্ফোরণের পর এমন প্রতিক্রিয়া জানান মারিয়া জাখারোভা। এদিকে রাশিয়ার লক্ষ্যবস্তুগুলোতে ইউক্রেনের হামলাগুলো বৈধ বলে ঘোষণা দিয়েছেন যুক্তরাজ্যের শীর্ষস্থানীয় এক মন্ত্রী।

সম্প্রতি রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেন, যেসব দেশ ইউক্রেন যুদ্ধে হস্তক্ষেপ করে রাশিয়ার জন্য ‘কৌশলগত হুমকি’ সৃষ্টি করছে, তাদের শিগগিরই জবাব দেওয়া হবে।

ইউরোপ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন