default-image

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার (ডব্লিউএইচও) প্রধান তেদরোস আধানোম গেব্রেয়াসুস কোয়ারেন্টিনে আছেন। গতকাল রোববার তিনি নিজেই এ কথা জানিয়েছেন। বার্তা সংস্থা এএফপির প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

তাঁর সঙ্গে দেখা হয়েছে এমন একজনের করোনা পজিটিভ হওয়ার পর থেকেই সেলফ কোয়ারেন্টিনে আছেন ডব্লিউএইচও মহাপরিচালক গেব্রেয়াসুস। তিনি টুইট বার্তায় বলেন, ‘আমার সঙ্গে দেখা হয়েছিল এমন একজনের কোভিড-১৯ পজিটিভ হয়েছে। তবে আমি ভালো আছি। আর আমার কোনো লক্ষণও নেই।’

গেব্রেয়াসুস বলেন, ‘আমি সুস্থ থাকলেও ডব্লিউএইচওর প্রটোকল মেনে আমি নিজ ব্যবস্থাপনায় আগামী কিছুদিন কোয়ারেন্টিনে থাকব। আর কাজ করব ঘর থেকেই।’    

বিজ্ঞাপন

করোনা মহামারির বিরুদ্ধে লড়াইয়ে জাতিসংঘের এই সংস্থার প্রধান হিসেবে সম্মুখ সারিতে আছেন বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার এই প্রধান। ইতিমধ্যে এই ভাইরাসে প্রাণ গেছে প্রায় ১২ লাখ মানুষের। আক্রান্ত হয়েছেন ৪ কোটি ৬০ লাখের বেশি মানুষ। গত বছরের ডিসেম্বর মাসে চীনের হুবেই প্রদেশের উহানে করোনার প্রাদুর্ভাব হয়।

গতকাল টুইট বার্তায় গেব্রেয়াসুস বলেন, ‘স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলা আমাদের সবার জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। এর মাধ্যমেই আমরা কোভিড-১৯–এর সংক্রমণ রোধ করতে পারি, এই ভাইরাস ছড়ানোর প্রবণতা রুখতে পারি এবং স্বাস্থ্য ব্যবস্থাকে সুরক্ষিত করতে পারি।’

৫৫ বছর বয়সী গেব্রেয়াসুস ইথিওপিয়ার সাবেক স্বাস্থ্য ও পররাষ্ট্রমন্ত্রী।

কোভিড-১৯ থেকে রক্ষা পেতে হাত ধোয়া, মাস্ক পরা এবং সামাজিক দূরত্ব মেনে চলতে সবার প্রতি বারবারই আহ্বান জানিয়ে আসছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। বিশ্বের বিভিন্ন দেশের সরকারের প্রতি তারা রোগনির্ণয়, টেস্ট, শনাক্ত করা ও সেই সঙ্গে কোয়ারেন্টিনের ব্যবস্থা করার আহ্বানও জানিয়েছে।

মন্তব্য পড়ুন 0