বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

নির্বাচনে জয় উপলক্ষে ইউনাইটেড রাশিয়া পার্টি তাদের সদর দপ্তরে বিজয় সমাবেশ করেছে। এই সমাবেশ রাষ্ট্রীয় সম্প্রচার মাধ্যমে প্রচার করা হয়। সমাবেশে মস্কোর মেয়র সের্গেই সোবইয়ানিন অংশ নেন। তিনি রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের ঘনিষ্ঠ সহযোগী হিসেবে পরিচিত। সমাবেশে মস্কোর মেয়রকে ‘পুতিন, পুতিন, পুতিন’ বলে চিৎকার করতে দেখা যায়।

ভোটের পূর্ণাঙ্গ ফল এখনো পাওয়া যায়নি। তবে প্রাপ্ত আংশিক ফলাফল অনুযায়ী, এবারের সংসদ নির্বাচনে ক্ষমতাসীন ইউনাইটেড রাশিয়া ভালো করতে পারেনি। ২০১৬ সালে অনুষ্ঠিত সবশেষ সংসদ নির্বাচনে ইউনাইটেড রাশিয়া ৫৪ শতাংশের বেশি ভোট পেয়েছিল। সে হিসাবে এবার ক্ষমতাসীন দলটির ভোটপ্রাপ্তির হার আগেরবারের তুলনায় বেশ কম।

বিরোধী দলের নেতা-কর্মীদের ব্যাপক দমনপীড়নের মধ্য দিয়ে গত শুক্রবার রাশিয়ায় সংসদ নির্বাচনে টানা তিন দিনের ভোট গ্রহণ শুরু হয়। স্থানীয় সময় গতকাল রোববার ভোট গ্রহণ শেষ হয়।

রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট পুতিনের দল ইউনাইটেড রাশিয়া সংসদে সংখ্যাগরিষ্ঠতা ধরে রাখতে যাচ্ছে বলে গতকালই বিভিন্ন গণমাধ্যমের প্রতিবেদনে আভাস দেওয়া হয়। তবে দলটি যে আগের সংসদ নির্বাচনের তুলনায় খারাপ ফল করতে যাচ্ছে সে কথাও বলা হয়।

ভোটের আগে সম্ভাব্য ফল নিয়ে বেশ উদ্বেগের মধ্যে ছিল ক্ষমতাসীন ইউনাইটেড রাশিয়া। এ কারণে দেশটির বিরোধীদলীয় নেতা-কর্মীদের ওপর ব্যাপক দমনপীড়ন চালানো হয়।

এই নির্বাচনে ক্রেমলিনের বেশির ভাগ শক্ত প্রতিদ্বন্দ্বীকে অংশই নিতে দেওয়া হয়নি। এ ছাড়া বিরোধী ও সমালোচকদের ভোটদানে বাধা দেওয়া হয়।

default-image

নির্বাচনে পুতিনের ইউনাইটেড রাশিয়া ছাড়াও প্রায় এক ডজন দল অংশ নেয়। তবে এই দলগুলো নামমাত্র বিরোধী দল হিসেবে পরিচিত।

পুতিনের প্রধান প্রতিপক্ষ হিসেবে পরিচিত বিরোধী নেতা অ্যালেক্সি নাভালনি বা তাঁর কোনো সমর্থককে এই নির্বাচনে অংশ নিতে দেওয়া হয়নি।

নাভালনি বর্তমানে কারাগারে আছেন। নির্বাচনে ইউনাইটেড রাশিয়ার জয়ের পথ সুগম করতে নাভালনির ‘স্মার্ট ভোটিং’ অ্যাপ গুগল প্লে স্টোর ও অ্যাপল স্টোর থেকে সরিয়ে নেওয়া হয়। এ নিয়ে দেশে-বিদেশে সমালোচনা হয়।

পুতিনের দলের এই জয়কে হতাশাজনক উল্লেখ করে বার্তা দিয়েছেন কারাবন্দী বিরোধী নেতা নাভালনি।

ইউরোপ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন