বিপণিবিতান থেকে কেনাকাটার ঝুড়ি সংগ্রহ করছেন দুজন। শুক্রবার হাঙ্গেরির রাজধানী বুদাপেস্টের পূর্বাঞ্চলীয় শহর চোমরে
বিপণিবিতান থেকে কেনাকাটার ঝুড়ি সংগ্রহ করছেন দুজন। শুক্রবার হাঙ্গেরির রাজধানী বুদাপেস্টের পূর্বাঞ্চলীয় শহর চোমরে ছবি: এএফপি

ভালোবাসা দিবস এলেই প্রেমহীন জীবনের ব্যথা যেন নতুন করে হাজির হয় তরুণ-তরুণীদের বুকে। তাই তাঁদের ভালোবাসার মানুষ খুঁজে দিতে বিশেষ পদক্ষেপ নিয়েছে হাঙ্গেরির একটি বিপণিবিতান। ভালোবাসা দিবসে বিপণিবিতানটিতে যেসব সঙ্গীবিহীন ক্রেতা কেনাকাটা করতে যাবেন, তাঁদের হাতে ধরিয়ে দেওয়া হবে বিশেষ ঝুড়ি। সেই ঝুড়িতে থাকবে ‘সিঙ্গেল’ থাকার চিহ্ন। এতে মিললেও মিলতে পারে প্রিয়জন।

বিপণিবিতানটি হাঙ্গেরির রাজধানী বুদাপেস্টের পূর্বাঞ্চলীয় শহর চোমরে অবস্থিত। ওচান নামের ওই বিতানে প্রবেশদ্বারের কাছে রাখা হয়েছে কেনাকাটার ঝুড়ি। নীল বা গোলাপি, যেকোনো  রঙের ঝুড়ি পছন্দ করতে পারেন ক্রেতারা। ঝুড়ির স্তূপের কাছে লেখা রয়েছে, ‘আপনি কি সঙ্গীবিহীন? তাহলে এই ঝুড়ি ব্যবহার করুন, এতে আপনি আপনার প্রিয় দোকানটিতে “একজনের” সাক্ষাৎ পেয়েও যেতে পারেন।’

ওচান বিপণিবিতানে কেনাকাটা করতে আসা ক্রেতাদের একজন ২৫ বছর বয়সী সিলা বারেস। তিনি এএফপিকে বলেন, করোনাভাইরাসের এই সময় এটি একটি দারুণ ধারণা। যাঁরা সঙ্গী খুঁজছেন, তাঁদের জন্য এটি একটি ভালো সুযোগও বটে। এটি বিনোদন ও মজার বিষয়ও।

বিজ্ঞাপন

বিষয়টি সঙ্গী খোঁজার দারুণ সুযোগ উল্লেখ করে ২৫ বছর বয়সী আরেক ক্রেতা টমাস বলেন, ‘দেখা যাক কী হয়। চেষ্টা করছি। আমরা এই সুযোগ হেলায় নষ্ট করতে পারি না।’ এই সময় তিনি ঝুড়ি নিয়ে দোকানে দোকানে ঘুরছিলেন সঙ্গীর খোঁজে।

হাঙ্গেরিতে করোনাভাইরাসের সংক্রমণের কারণে কঠোর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়। তাই নিষেধাজ্ঞার কবলে পড়ে ডেটিং চ্যানেলগুলো। ফলে এসব চ্যানেলের ব্যবহারকারী লোকজনকে সঙ্গী খুঁজে দিতেই এই ব্যতিক্রমী ধারণা মাথায় আসে ওচানের এক কর্মীর।

default-image

ধারণাটি ব্যাপক সাড়া ফেলেছে জানিয়ে ওচানের ব্যবস্থাপক ইল্‌দিকো ভারগা ফুতো বলেছেন, ‘অবশ্যই এটি একটি ভালো ধারণা। এর মাধ্যমে আমরা মানুষের মনোযোগ আকর্ষণ করতে পেরেছি, যাতে আপনারা মহামারির বিধিনিষেধ মেনে সঙ্গী খুঁজে নিতে পারেন।’ চোমরের পদক্ষেপ সফল হলে ওচানের অন্য দোকানগুলোতেও একই সেবা চালু করা হবে বলে জানিয়েছেন তিনি।

ইউরোপ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন