বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

শ্বাসরুদ্ধকর এ কাজ করার সময় নিরাপত্তার জন্য পলিনের শরীরের সঙ্গে বাঁধা ছিল একটি রশি। রশিটি মূল রশির সঙ্গে যুক্ত ছিল। কোনো কারণে তাঁর পা ফসকালেও যেন দুর্ঘটনা না ঘটে, সে জন্যই এই ব্যবস্থা। ৬০০ মিটারের ওই রশিপথ পাড়ি দিতে পলিনকে মাঝেমধ্যে বিশ্রামও নিতে হয়েছে। আর সে বিশ্রাম তিনি নিয়েছেন কখনো রশির ওপর বসে, কখনো শুয়ে।

কাজটা যে সহজ ছিল না, তা স্বীকার করেছেন পলিন। তিনি বলেন, এভাবে ৬০০ মিটার পথ হাঁটা মোটেও সহজ ছিল না। এর জন্য প্রয়োজন গভীর মনোযোগ। পাশাপাশি মানসিক চাপ ও সংশ্লিষ্ট অনেক কিছু সামাল দেওয়ার সক্ষমতা।

পলিনের জন্য কৃতিত্বপূর্ণ এমন রেকর্ড নতুন কিছু নয়। ২০১৭ সালে ফ্রান্সের ঐতিহ্য দিবসে রশির ওপর হেঁটে সেন নদী পাড়ি দিয়ে রেকর্ড গড়েন পলিন।

ফ্রান্সের মতো ইউরোপজুড়ে প্রতিবছর সেপ্টেম্বর মাসের তৃতীয় সপ্তাহে ঐতিহ্য দিবস পালন করা হয়। এ সময় দর্শনার্থীদের জন্য ঐতিহ্যবাহী সব জিনিসের দরজা খুলে দেওয়া হয়। দর্শনার্থীরা এসব উপভোগ করতে পারেন বিনা পয়সায়। এবার পলিনের কাণ্ড দেখতে সেন নদীর তীরে ভিড় করেছিলেন অনেক দর্শনার্থী। তাঁরা করতালি দিয়ে তাঁকে উৎসাহ জুগিয়েছেন, জানিয়েছেন উষ্ণ অভিনন্দন।

পলিন বলেছেন, শ্বাসরুদ্ধকর এমন কাজ করার পেছনে তাঁর একটি উদ্দেশ্য রয়েছে। আর তা হলো, ঐতিহ্যের প্রতি মানুষের নতুন দৃষ্টিভঙ্গি তৈরি করা। এতে ঐতিহ্য জীবন ফিরে পায়।

ইউরোপ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন