আজ সকালে রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন ইউক্রেনের বিচ্ছিন্নতাবাদী–নিয়ন্ত্রিত দনবাস অঞ্চলে রুশ সামরিক অভিযান শুরুর নির্দেশ দেওয়ার পর ইউক্রেন এসব কথা জানাল। পুতিনের সামরিক অভিযান শুরুর নির্দেশ আসার পরই আজ রাজধানী কিয়েভসহ ইউক্রেনে আরও দুটি স্থানে বিস্ফোরণ হয়েছে বলে জানিয়েছে বিবিসি।

একজন প্রত্যক্ষদর্শীর বরাত দিয়ে বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানিয়েছে, ইউক্রেন সীমান্তের কাছাকাছি রাশিয়ার দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের বেলগোরোদ প্রদেশ বিস্ফোরণের আওয়াজ পাওয়া গেছে। তবে সেটা কি বিস্ফোরণের শব্দ, নাকি অন্য কিছু, সে সম্পর্কে এখনো নিশ্চিত হতে পারেনি রয়টার্স।

মার্কিন গণমাধ্যম সিএনএনের সাংবাদিক ফ্রেডরিক প্লেইটজেন বলেন, কামানের গোলা আর রকেট ছোড়ার আওয়াজ পেয়েছেন। এ ছাড়া কিছু বিমান ওড়ার শব্দও তিনি পেয়েছেন। বিমানগুলো ইউক্রেনের দিকে উড়ে গেছে বলে ধারণা করছেন তিনি।

পুতিন দনবাসে সামরিক অভিযান চালানোর নির্দেশের পরই রাশিয়ার সীমান্তের দক্ষিণের খারকিভে স্থানীয় সময় আজ ভোরের দিকে বিস্ফোরণ ঘটেছে। ইউক্রেনের দ্বিতীয় বৃহত্তম শহর এটি। শহরটি রাশিয়া সীমান্তের ৩৫ কিলোমিটার (২০ মাইল) দক্ষিণে। ইউক্রেনের পূর্বাঞ্চলের এ এলাকায় ২০১৪ সাল থেকে ইউক্রেনীয় সেনাবাহিনী ও মস্কো-সমর্থিত বিদ্রোহীদের লড়াই চলছে।

এ পরিস্থিতির মধ্যে ইউক্রেনে সামরিক শাসন জারির আহ্বান জানিয়েছেন দেশটির প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি। এ নিয়ে জরুরি বৈঠকে বসেছে দেশটির জাতীয় নিরাপত্তা ও প্রতিরক্ষা পরিষদ। সামরিক অভিযান শুরুর ঘোষণা দিয়ে পুতিন বলেছেন, ইউক্রেনের সেনাদের সঙ্গে রাশিয়ার সেনাদের সংঘর্ষ অনিবার্য।

ইউরোপ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন