ওলাফ শলৎজ বলেন, ‘আমাদের পক্ষ থেকে ইউক্রেনকে কীভাবে সর্বোচ্চ সহযোগিতা করা যায়, এই সিদ্ধান্ত তার একটি নমুনা।’ এক বিবৃতিতে জার্মান চ্যান্সেলর আরও বলেন, ইউক্রেনকে দুই ব্যাটালিয়ন লেপার্ড-২ ট্যাংক দেওয়া হবে। প্রথম ধাপে জার্মান সেনাবাহিনীর ভান্ডার থেকে ১৪টি লেপার্ড-২ ট্যাংক দেওয়া হবে।

শিগগিরই ইউক্রেনের সেনাদের ট্যাংক ব্যবহারের প্রশিক্ষণ দেবে জার্মানি। পাশাপাশি ইউক্রেনকে আরও কারিগরি ও গোলাবারুদ দিয়ে সহায়তা করার বিষয়ে আশ্বস্ত করেছেন ওলাফ শলৎজ।

কয়েক সপ্তাহ ধরে ইউক্রেনকে লেপার্ড-২ ট্যাংক দেওয়া নিয়ে জল্পনাকল্পনা চলছে। এ পরিস্থিতিতে জার্মান চ্যান্সেলর শলৎজ ইউক্রেনকে ট্যাংক দেওয়ার বিষয়ে রাজি হয়েছেন বলে গতকাল মঙ্গলবার প্রথম সংবাদ প্রকাশ করে দেশটির সংবাদমাধ্যম ডের স্পিগেল। পরে দেশটির আরও কয়েকটি সংবাদমাধ্যমে একই ধরনের খবর প্রকাশিত হয়, যা পরবর্তী সময়ে আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমগুলো ফলাও করে প্রচার করে।  

খবরে আরও বলা হয়েছে, যুদ্ধক্ষেত্রে রাশিয়ার বিরুদ্ধে শক্তিশালী অবস্থান নেওয়ার জন্য পোল্যান্ডসহ ইউরোপের কোনো দেশ যদি জার্মানিতে তৈরি লেপার্ড-২ ট্যাংক ইউক্রেনের হাতে তুলে দেয়, সে ক্ষেত্রে বাধা হয়ে দাঁড়াবে না বার্লিন। যদিও এর আগে গত রোববার জার্মানির পররাষ্ট্রমন্ত্রী আনালিনা বায়েরবোক বলেছেন, যুদ্ধে সহায়তার জন্য পোল্যান্ড লেপার্ড-২ ট্যাংক ইউক্রেনে পাঠাতে চাইলে তাঁর সরকার বাধা দেবে না।