এ ঘটনা সম্পর্কে জানেন এমন তিনজন কর্মকর্তা ওয়াশিংটন পোস্টকে বলেছেন, ড্রোন তৈরি শুরু করতে প্রযুক্তি ও মূল উপাদান হস্তান্তরে দুই দেশ তৎপর হয়েছে। কয়েক মাসের মধ্যে রাশিয়ায় ড্রোনের উত্পাদন শুরু হতে পারে।

ইরান রাশিয়ার কাছে ড্রোন বিক্রির বিষয় নিশ্চিত করার পর নতুন এ চুক্তির কথা জানা গেল। তবে ইরান এ–ও জানিয়েছে, ইউক্রেন যুদ্ধ শুরুর কয়েক মাস আগেই তারা মস্কোর কাছে ওই ড্রোনগুলো বিক্রি করেছিল।

সম্প্রতি ইউক্রেনের বিভিন্ন শহরে ব্যাপক হামলা চালায় রাশিয়া। এসব হামলায় ইরানের ড্রোন ব্যবহার করা হয়েছে বলে দাবি করেছিল ইউক্রেনসহ দেশটির পশ্চিমা মিত্ররা। তবে সে সময় রাশিয়া ও ইরান—দুই পক্ষই ওই দাবি উড়িয়ে দেয়।