রাজা চার্লস ও ক্যামিলাকে স্বাগত জানাতে শহরের রাজকীয় প্রবেশদ্বার মিকেলগেট বারে ভিড় জমে যায়। এ সময় ডিম ছোড়ার ঘটনায় ওই ব্যক্তিকে ঠেকায় পুলিশ।
চার পুলিশ সদস্য ওই ব্যক্তিকে আটক করেন। এ সময় ওই ব্যক্তি চিৎকার করে বলেন, ‘এই দেশ দাসদের রক্তে তৈরি। তিনি আমার রাজা নন।’

এ সময় ভিড়ের মধ্যে থেকে কয়েকজন ‘রাজাকে সৃষ্টিকর্তা রক্ষা করুক’ বলে চিৎকার করেন। অনেকে ‘নিপাত যাও’ বলে চিৎকার করে ওঠেন।

ডিম ছুড়ে মারা ব্যক্তিকে পুলিশ আটক করার সময় রাজা চার্লসকে কিছুটা অপ্রস্তুত দেখায়। তবে তিনি ভিড়ের মধ্যে থাকা জনগণকে শুভেচ্ছা জানাতে থাকেন। স্থানীয় নেতাদের সঙ্গে করমর্দন করেন। ক্যামিলাকেও কিছুটা অপ্রস্তুত দেখায়। পরে তিনি নিজেকে সামলে নেন।

ইয়র্ক শহরে চার্লস ও ক্যামিলার বেশ কয়েকটি অনুষ্ঠান রয়েছে। রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথের মূর্তি উন্মোচন উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে যোগ দিতে তাঁরা সেখানে গিয়েছিলেন। অনুষ্ঠানে চার্লস বলেন, প্রয়াত রানি সব সময় মানুষের কল্যাণের জন্য কাজ করেছেন।

রানির মূর্তিটি দুই মিটারের। ওজন ১ দশমিক ১ টন। এটি ফ্রান্সের লেপাইন চুনাপাথর দিয়ে বানানো। রানির সিংহাসনে আরোহণের প্লাটিনাম জয়ন্তী উপলক্ষে গত আগস্ট মাসে মূর্তিটি বানানো হয়।

রাজা চার্লস ও কুইন কনসর্টের এরপর ডনকাস্টারে যাওয়ার কথা রয়েছে।
বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ বলেছে, তারা ওই ঘটনার ছবি দেখে আতঙ্কিত হয়েছে। ওই ব্যক্তির অসদাচরণের ঘটনা খতিয়ে দেখা হবে।