মন্ত্রী অ্যাগনেস প্যানিয়ার-রানাচার রেডিও স্টেশন আরএমসিকে বলেন, শীতাতপযন্ত্র চলার সময় দোকানের দরজা খোলার রাখাটা ‘অযৌক্তিক’। তিনি বলেন, প্রথমটি বিজ্ঞাপন বোর্ডের ওপর। শহরে যেকোনো ধরনের বিজ্ঞাপনের আলোকসজ্জার ওপর বেলা একটা থেকে সন্ধ্যা ছয়টার মধ্যে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হবে। আর দ্বিতীয়টি শীতাতপযন্ত্র চলাকালে ও কক্ষ গরম করার সময় দরজা খোলা রাখার ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি হয়।

যেসব এলাকার জনসংখ্যা আট লাখের নিচে, সেসব এলাকায় নিয়ন সাইনের ইতিমধ্যে বন্ধ রাখতে বাধ্য করা হয়েছে। তবে বিমানবন্দর ও স্টেশনগুলো এই নিষেধাজ্ঞার বাইরে।

অ্যাংলো-ডাচ বহুজাতিক তেল ও গ্যাস কোম্পানি শেল সতর্ক করেছে যে ইউরোপীয় ইউনিয়নভুক্ত দেশগুলোতে জ্বালানির রেশনিংকে উড়িয়ে দেওয়া যাবে না। কারণ, এই দেশগুলোকে রাশিয়া থেকে গ্যাস সরবরাহ পেতে বেশ লড়াই করতে হচ্ছে।

স্মরণকালের রেকর্ড করা গরমে ইউরোপের বিভিন্ন দেশে নাজেহাল হচ্ছে মানুষ। গত মঙ্গলবার বিভিন্ন দেশে প্রায় ৪০ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা উঠেছিল। সাম্প্রতিক বছরগুলোর মধ্যে ওই দিন ছিল ইউরোপের সবচেয়ে উষ্ণতম দিন। ফলে শীতাতপযন্ত্রের চাহিদা বেশ বাড়ছে।

ইউরোপ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন