কার্লোস থ্রি হেলথ ইনস্টিটিউট বলেছে, পরিসংখ্যানগত অনুমানের ভিত্তিতে দাবদাহে মৃত্যুর এই হিসাব করা হয়েছে। এটা সরকারিভাবে রাখা মৃত্যুর হিসাব নয়।

পেদ্রো শানচেজ বলেছেন, ‘পরিসংখ্যান অনুযায়ী চলমান এই দাবদাহে পাঁচ শতাধিক মানুষ প্রাণ হারিয়েছেন। চরম তাপমাত্রার কারণে যেসব সতর্কতা মেনে চলা দরকার, আমি দেশবাসীকে তা মেনে চলার আহ্বান জানাচ্ছি। জলবায়ু পরিবর্তনের কারণে জরুরি পরিস্থিতি এখন বাস্তবতা।’

পশ্চিম ইউরোপের বেশির ভাগ অংশে যে দাবদাহ চলছে, তার বড় ভুক্তভোগী স্পেন। এই অঞ্চলের দেশগুলোয় সম্প্রতি শুরু হওয়া দাবদাহে জনজীবন বিপর্যস্ত। গত সপ্তাহে কোনো কোনো অঞ্চলের তাপমাত্রা ৪৫ ডিগ্রি সেলসিয়াসে গেয়ে ঠেকে। এমন প্রচণ্ড দাবদাহের কারণে সেখানে দাবানল ছড়িয়ে পড়েছে।

স্পেনের আবহাওয়া সংস্থা গতকাল বুধবার জানায়, ৯ থেকে ১৮ জুলাই পর্যন্ত হওয়া দাবদাহ স্পেনে রেকর্ড হওয়া এযাবৎকালের তীব্র দাবদাহগুলোর একটি।

ইউরোপ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন