প্রেসিচ্চে শহরের কাউন্সিলর আলফ্রেদো পালেসে বলেন, শহরটিতে ১৯৯১ সালের আগে নির্মাণ করা অনেক বাড়ি খালি পড়ে আছে। ওই বাড়িগুলো কেনার জন্যই অর্থ দেওয়া হবে। কারণ, তাঁরা চান খালি বাড়িগুলো আবার যেন মানুষে ভরে ওঠে।

প্রেসিচ্চে শহরে মানুষের জন্মহার দিনকে দিন কমেই যাচ্ছে। এতে করে শহরটির জনসংখ্যা কমে আসছে বলে জানান পালেসে। দুঃখ প্রকাশ করে তিনি বলেন, ‘ইতিহাস, সুন্দর সুন্দর স্থাপনা ও শিল্পসমৃদ্ধ শহরটি খালি হয়ে যাচ্ছে এটা চোখের সামনে দেখাটা কষ্টের।’

বসবাসের বিনিময়ে অর্থ দেওয়ার পরিকল্পনা নাকি কাজে দিয়েছে। কাউন্সিলর জানিয়েছেন, আগামী কয়েক সপ্তাহেও বসবাসের আবেদন নেওয়া হবে। আগ্রহীরা শহরের টাউন হল ওয়েবসাইটে গিয়ে প্রয়োজনীয় তথ্য দিতে পারবেন।

শহরটিতে বসবাসে রাজি থাকলে অর্থ দুই ধাপে দেওয়া হবে বলে জানান আলফ্রেদো পালেসে। প্রথম ধাপে শহরের একটি পুরোনো বাড়ি কেনার জন্য অর্থ ছাড় করা হবে। বাকি অর্থ ওই বাড়িটি সংস্কারের প্রয়োজন হলে দেওয়া হবে।