ভিডিওটি ধারণ করেছেন ওই ব্যক্তি নিজেই হ্যামকের ভেতরে খোশমেজাজে আয়েশ করে শুয়ে। রেডিটে শেয়ার করা ১৪ সেকেন্ডের ভিডিওটির শিরোনামে লেখা হয়েছে, ‘স্পেনের পাইরেনিসের চূড়ায় হ্যামক–বিলাস’। পাইরেনিস পার্বত্য অঞ্চল ফ্রান্স ও স্পেনে অবস্থিত। পাহাড়ে চড়তে বা হাইকিং করতে পছন্দ করেন, এমন মানুষের কাছে পছন্দের জায়গা এটি।

‘হ্যামক–বিলাসের’ ভিডিওটি নজর কেড়েছে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ব্যবহারকারীদের। সেটি এখন পর্যন্ত দুই লাখের বেশিবার দেখা হয়েছে। অনেকেই ওই ব্যক্তির সাহসের তারিফ করেছেন। অনেকে আবার মজা করতে ভোলেননি। যেমন একজন মন্তব্য করেছেন, ‘এমন জায়গায় আমি থাকলে জ্ঞান হারাতাম এবং নিচে পড়ে যেতাম।’

আরেকজন মজা করে লিখেছেন, ‘আমার ওই কার্টুনগুলোর কথা মনে পড়ছে, যেখানে হ্যামকের ভেতরে মানুষ শুয়ে দুলতে থাকে আর একসময় হঠাৎ নিচে পড়ে যায়।’ এক মন্তব্যকারী আবার কথা তুলেছেন ভিডিও ধারণ করার ক্যামেরাটি নিয়ে।

তিনি বলেন, ‘অবশ্যই এমন কাজ আমি করব না। তবে মজার বিষয় হলো এই ক্যামেরাগুলোয় উচ্চতা স্বাভাবিকের তুলনায় অনেক বেশি দেখায় এবং সবকিছু আরও বিপজ্জনক মনে হয়।’