নাইজেল রিকেটস যে ৪১ বছর ধরে বিয়ের কেকের একটি টুকরা সংরক্ষণ করে রেখেছিলেন, তা কেউই জানতেন না। তাঁর মৃত্যুর পর বিষয়টি জানাজানি হয়। ওই কেকের টুকরাটি নিলামে তুলছে যুক্তরাজ্যের নিলামকারী প্রতিষ্ঠান ডোর অ্যান্ড রিজ অকশনস। কেকের টুকরাটি একটি বাক্সের ভেতরে সংরক্ষণ করে রাখা আছে। নিলামকারী প্রতিষ্ঠানটি আশা করছে, কেকের টুকরাটি ৩০০ পাউন্ড মূল্যে বিক্রি হতে পারে।

প্রিন্স চার্লস ও প্রিন্সেস ডায়ানার বিয়ের জন্য মোট ২৩টি কেক তৈরি করা হয়েছিল। নিলামে তুলতে যাওয়া ওই টুকরাটি একটি ফ্রুটকেকের। পাঁচ স্তরের কেকটি ছিল পাঁচ ফুট লম্বা। কেকটির একটি টুকরা ২০১৪ সালে নিলামে তোলা হয়েছিল। সেই টুকরাটি বিক্রি হয়েছিল ১ হাজার ৩৭৫ পাউন্ডে।

বিয়ের উপহার হিসেবে চার্লস ও ডায়ানার জন্য লেখালেখি করা যায় এমন একটি টেবিল কিনে দিয়েছিলেন নাইজেল রিকেটস ও রাজপরিবারের অন্য সদস্যরা। সেই উপহার পেয়ে চার্লস খুব খুশি হয়েছিলেন।

চার্লস ও ডায়ানার বিয়ে হয় ১৯৮১ সালের ২৯ জুলাই। বিশ্বের লাখ লাখ মানুষ টেলিভিশনে সেই দৃশ্য দেখেন। এমনকি একে ‘শতাব্দীর শ্রেষ্ঠ বিয়ে’ বলে থাকেন অনেকেই। তবে সেই বিয়ে বেশি দিন টেকেনি। ১৯৯২ সাল থেকেই আলাদা থাকতে শুরু করেন এই দম্পতি। ১৯৯৬ সালে তাঁদের আনুষ্ঠানিক বিবাহবিচ্ছেদ ঘটে।