রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধ নিয়ে মস্কো ও ওয়াশিংটনের মধ্যে উত্তেজনা দিন দিন বাড়ছে। ভবিষ্যতে মহাকাশ গবেষণায় সহযোগিতা বিষয়ে যুক্তরাষ্ট্র ও রাশিয়ার মধ্যে সন্দেহ তৈরি হয়েছে। এসব কিছুর মধ্যেই রাশিয়ার মহাকাশ সংস্থা রসকসমসের নবনিযুক্ত মহাপরিচালক ইউরি বোরিসভের ঘোষণা বিস্ময় তৈরি করেছে।

দুই সপ্তাহেরও কম সময় আগে রাশিয়া ও যুক্তরাষ্ট্র একটি ক্রু বিনিময় চুক্তি স্বাক্ষর করে। চুক্তিতে মার্কিন ও রুশ মহাকাশচারীরা ভবিষ্যতে আন্তর্জাতিক মহাকাশ স্টেশন (আইএসএস) থেকে একে অপরের মহাকাশযানে ফ্লাইট শেয়ারের বিষয়ে একমত হয়।

নাসার প্রশাসনিক কর্মকর্তা বিল নেলসন এক বিবৃতিতে বলেন, ২০৩০ সাল পর্যন্ত আইএসএস চালু রাখতে মার্কিন প্রতিশ্রুতি পুনর্ব্যক্ত করেন। তিনি বলেন, নাসা ‘আমাদের অংশীদারদের সঙ্গে সমন্বয় করছে।’

১৯৯৮ সালে কার্যক্রম শুরু করা আইএসএস ২০০০ সালের নভেম্বর থেকে অংশীদারত্বের ভিত্তিতে মার্কিন-রাশিয়ান যৌথ নেতৃত্বে পরিচালিত হয়ে আসছে। এই অংশীদারত্বের মধ্যে কানাডা, জাপান ছাড়াও ১১টি ইউরোপীয় দেশও রয়েছে।

বোরিসভ গত মঙ্গলবার রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনকে বলেন, ‘আমরা অবশ্যই আমাদের অংশীদারদের দেওয়া সব বাধ্যবাধকতা মেনে চলব। তবে ২০২৪ সালের পরে স্টেশন থেকে সরে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।’

ইউরোপ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন