গত সেপ্টেম্বরে পুতিন ইউক্রেনে আংশিক সেনা সমাবেশ করার ঘোষণা দেন। তখন ক্রেমলিন জানায়, নতুন করে তিন লাখ রিজার্ভ সেনাকে ডেকে পাঠানো হবে।

প্রতিরক্ষামন্ত্রী সোইগু পুতিনকে জানিয়েছেন, তিন লাখ রিজার্ভ সেনার মধ্যে ২ লাখ ১৮ হাজার প্রশিক্ষণ নিচ্ছেন এবং ৮২ হাজার সেনা ইউক্রেনে পাঠানো হয়েছে।

ইউক্রেনে যুদ্ধের জন্য যেসব রিজার্ভ সেনাকে ডাকা হয়েছে তাঁদের উদ্দেশে পুতিন বলেন, ‘কর্তব্যের প্রতি তাঁদের আত্মত্যাগ, তাঁদের দেশপ্রেম, আমাদের দেশ রক্ষা, তাঁদের বাড়িঘর, তাঁদের পরিবার, দেশের নাগরিক ও আমাদের জনগণকে রক্ষা করার জন্য তাঁদের যে দৃঢ়সংকল্প এর জন্য আমি তাঁদেরকে ধন্যবাদ জানাতে চাই।’

এদিকে প্রতিরক্ষামন্ত্রী সের্গেই সোইগু বলেছেন, ‘রাশিয়ার কয়েক লাখ রিজার্ভ সেনা রয়েছে। তবে ইউক্রেনে রুশ বাহিনীর অভিযানের জন্য এবার আর রিজার্ভ সেনা না ডেকে বরং সেচ্ছ্বাসেবী এবং পেশাদার সৈনিক নেওয়া হবে।’ এর মধ্য দিয়ে ইউক্রেনে রাশিয়ার রিজার্ভ সেনাদের পাঠানোর কর্মসূচির সমাপ্তি ঘটছে বলে ধারণা।