গোতাবায়া রাজাপক্ষে বর্তমানে স্ত্রীকে নিয়ে থাইল্যান্ডের একটি হোটেলে অবস্থান করছেন। ২৫ আগস্ট তিনি শ্রীলঙ্কা ফিরবেন বলে জানিয়েছেন। এর আগে তিনি থাইল্যান্ডে নভেম্বর মাস পর্যন্ত থাকার পরিকল্পনা করেছিলেন। তবে সে পরিকল্পনা বাতিল করেছেন তিনি।

সূত্র বলেছে, দুই দিন আগে আইনজীবীদের সঙ্গে আলোচনার পর এ মাসের শেষ দিকে শ্রীলঙ্কা ফিরে আসার সিদ্ধান্ত নেন গোতাবায়া রাজাপক্ষে। প্রাথমিকভাবে তিনি থাইল্যান্ডে মুক্তভাবে ঘোরার আশা করেছিলেন। কিন্তু নিরাপত্তা উদ্বেগ দেখিয়ে থাইল্যান্ড সরকার তাঁকে বাইরে যেতে নিষেধ করেছে। এ ছাড়া তাঁর নিরাপত্তার জন্য থাইল্যান্ডের স্পেশাল ব্রাঞ্চ ব্যুরোর নিরাপত্তা কর্মকর্তারা সাদাপোশাকে দায়িত্ব পালন করছেন। এ ছাড়া দেশটির সরকারি কর্মকর্তারা গোতাবায়াকে হোটেলের মধ্যেই থাকতে নির্দেশ দিয়েছেন। প্রতিশ্রুতিমতো স্বাধীনতা না পেয়ে গোতাবায়া তাঁর পরিকল্পনা বদল করছেন।

এদিকে শ্রীলঙ্কায় ফিরলে গোতাবায়াকে সরকারি বাসভবন ও নিরাপত্তা দেওয়ার বিষয়টি নিয়ে আলোচনা করবে রনিল বিক্রমাসিংহের মন্ত্রিসভা। গত মাসে তীব্র বিক্ষোভের মুখে রাজাপক্ষে দেশ ছেড়ে প্রথমে মালদ্বীপ যান। সেখান থেকে পরে তিনি মেডিকেল ভিসা নিয়ে সিঙ্গাপুরে যান। দুবার তাঁর ভিসার মেয়াদ বাড়ানো হয়। এরপর সিঙ্গাপুর আর তাঁর ভিসার মেয়াদ না বাড়ানোয় সস্ত্রীক থাইল্যান্ডের উদ্দেশে রওনা দেন গোতাবায়া। তৃতীয় কোনো গন্তব্য নির্ধারণ না করা পর্যন্ত সেখানে তাঁর থাকার বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়।

এশিয়া থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন