যুক্তরাষ্ট্রের দক্ষিণ-মধ্যাঞ্চলের অঙ্গরাজ্য টেক্সাসের অলাভজনক প্রতিষ্ঠান আইরাইট ও ব্রায়ান জাদুঘর যৌথ উদ্যোগে বিশালাকারের এই বই ছেপেছে। বইটির নাম ‘আই এম টেক্সাস’।

মূলত টেক্সাসের এক হাজার শিক্ষার্থীর লেখা ও হাতে আঁকা ছবি দিয়ে বইটির পাতা সাজানো হয়েছে। এসব শিক্ষার্থীর সবাই তৃতীয় থেকে দ্বাদশ শ্রেণিতে পড়াশোনা করে। ‘আই এম টেক্সাস’ শিরোনামে একটি প্রতিযোগিতায় অংশ নিয়ে তারা এসব লেখা লিখেছে, ছবি এঁকেছে।

গিনেস ওয়ার্ল্ড রেকর্ডসের ওয়েবসাইটে দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, বইটি আকারে ৭ ফুট লম্বা ও ১১ ফুট চওড়া। ওজন ৪৯৬ পাউন্ড। মূলত গিনেস বুকে নাম তুলতেই বিশাল এই বই ছাপা হয়েছে। ৫ নভেম্বর এটি বিশ্বের সবচেয়ে বড় ছাপা বই হিসেবে গিনেস ওয়ার্ল্ড রেকর্ডসের আনুষ্ঠানিক স্বীকৃতি পেয়েছে।

আপাতত ব্রায়ান জাদুঘরে বইটি প্রদর্শন করা হচ্ছে। আগামী বৃহস্পতিবার হিউস্টনে থ্যাংকস গিভিং দিবসের প্যারেডে বিশালাকারের এই বই প্রদর্শন করা হবে। পরে টেক্সাসজুড়ে এটির প্রদর্শনী হবে।