বিজ্ঞাপন

দ্য ওয়্যারের প্রতিবেদনে বলা হয়, এখন পর্যন্ত করা ফরেনসিক বিশ্লেষণে দেখা গেছে, তালিকায় থাকা সাংবাদিকদের মধ্যে কয়েকজনের ক্ষেত্রে তাঁদের ফোনে পেগাসাস স্পাইওয়্যার ব্যবহার করে সফলভাবে নজরদারি চালানো হয়েছে।

দ্য ওয়্যার জানায়, ফাঁস হওয়া ফোন নম্বরের তালিকায় তাঁদের দুজন প্রতিষ্ঠাতা সম্পাদক রয়েছেন। এ ছাড়া আছেন একজন কূটনীতিক সম্পাদক ও দুজন নিয়মিত প্রদায়ক। তাঁদের মধ্যে আছেন রোহিনী সিং।

ভারতের কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহর ছেলে জয় শাহ ও ব্যবসায়ী নিখিল মার্চেন্টের ব্যবসা নিয়ে একের পর এক অনুসন্ধানী প্রতিবেদন করেছিলেন রোহিনী সিং। ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির ঘনিষ্ঠ হিসেবে পরিচিত নিখিল। এ ছাড়া কেন্দ্রীয় মন্ত্রী পীযুষ গোয়েলের সন্দেহজনক লেনদেন নিয়েও অনুসন্ধান করেছিলেন রোহিনী সিং।

দ্য ওয়্যার বলছে, এ ঘটনার পরই রোহিনী সিংকে আড়িপাতার জন্য নিশানা করা হয়।

এ নিয়ে রোহিনী সিং টুইট করেছেন। তিনি বলেছেন, জয় শাহ ও নিখিল মার্চেন্টকে নিয়ে প্রতিবেদন করার পর এবং পীযুষ গোয়েলের সন্দেহজনক লেনদেন নিয়ে অনুসন্ধানকালে পেগাসাস দিয়ে তাঁকে নিশানা করা হয়েছে।

রোহিনী সিং বলেছেন, তাঁর কথায় আড়িপাতা থেকে নিবৃত্ত থাকতে তিনি সরকারের প্রতি আহ্বান জানান। বরং তাঁর প্রতিবেদনগুলো সরকারকে পড়তে বলেন তিনি।

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসের সাবেক সাংবাদিক সুশান্ত সিংয়ের ফোন নম্বরও তালিকায় আছে। ২০১৮ সালের মাঝামাঝি তাঁর ফোন নম্বর তালিকায় যুক্ত হয়। এ সময় তিনি বিতর্কিত রাফাল যুদ্ধবিমান কেনাবেচা নিয়ে তদন্ত করেছিলেন।

ইসরায়েলি স্পাইওয়্যার ব্যবহার করে আড়িপাতার বিষয়ে ভারতের কেন্দ্রীয় সরকারের ভূমিকা সম্পর্কে অমিত শাহর ব্যাখ্যা দাবি করেছেন বিজেপির রাজ্যসভার সদস্য সুব্রামানিয়ান স্বামী। তিনি বলেছেন, এ ঘটনার সঙ্গে যদি কেন্দ্রীয় সরকারের কোনো যোগসূত্র থাকে, তাহলে অমিত শাহকে অবশ্যই তার ব্যাখ্যা দেওয়া উচিত।

পেগাসাস হলো একটি ম্যালওয়্যার (বিশেষ ধরনের ভাইরাস)। এর মাধ্যমে আইফোন ও অ্যানড্রয়েড ফোনের সব মেসেজ, ছবি, ই-মেইল, কল রেকর্ড বের করা যায়। এ ম্যালওয়্যার ফোন ব্যবহারকারীর অজ্ঞাতেই মাইক্রোফোন চালু করে দেয়। ইসরায়েলি কোম্পানি এনএসও এক বিবৃতিতে দাবি করেছে, তালিকায় যে ৫০ হাজার ফোন নম্বরের কথা বলা হচ্ছে, সেটা ‘অতিরঞ্জিত’।

পেগাসাস ব্যবহার করে বিশ্বের বিভিন্ন দেশের বিভিন্ন পর্যায়ের গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিদের স্মার্টফোনে আড়িপাতার ঘটনা এখন সামনে আসছে। এ নিয়ে বিভিন্ন দেশের গণমাধ্যমে খবর প্রকাশিত হচ্ছে।

ভারত থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন