ভারতের ওডিশা রাজ্যের একটি হাসপাতালের করোনা ইউনিটে চিকিৎসাধীন রোগী প্রস্তুতি নিচ্ছেন সিএ পরীক্ষার
ভারতের ওডিশা রাজ্যের একটি হাসপাতালের করোনা ইউনিটে চিকিৎসাধীন রোগী প্রস্তুতি নিচ্ছেন সিএ পরীক্ষারছবি: টুইটার

করোনায় আক্রান্ত হয়ে ভর্তি হাসপাতালে। চলছে চিকিৎসা। তবে শুয়ে–বসে সময় কাটাতে চান না তিনি। হাসপাতালে থাকার সময়টা গঠনমূলক কাজে ব্যয় করতে চান। তাই অসুস্থ শরীরে, হাসপাতালের শয্যায় বসেই নিয়েছেন পরীক্ষার প্রস্তুতি।

হাসপাতালের শয্যায় ওই রোগীর পড়াশোনার ছবি তুলে সামাজিক মাধ্যমে ছাড়া হলে মুহূর্তেই ভাইরাল হয়ে যায়। করোনায় আক্রান্ত হওয়ার পরও ক্লান্ত ও অসুস্থ শরীরে তাঁর এমন মনোবল ও অধ্যবসায়ের প্রশংসা করেছেন অনেকে।

ঘটনাটি ভারতের ওডিশা রাজ্যের বেরহামপুরের। ভারতীয় গণমাধ্যম এনডিটিভির খবরে বলা হয়েছে, সেখানকার এমকেসিজি মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল পরিদর্শনে গিয়েছিলেন গানজাম জেলার ম্যাজিস্ট্রেট ও কালেক্টর বিজয় কুলাঞ্জ। হাসপাতালের করোনা ইউনিটে তিনিই ওই রোগীর ছবি তোলেন। পরে ছবিটি টুইটারে পোস্ট করেন বিজয়।

প্রকাশিত ছবিতে দেখা যায়, মুখে কালো মাস্ক পরে করোনা ইউনিটের শয্যায় বই–খাতা খুলে বসেছেন ওই রোগী। সামনে রাখা আছে ক্যালকুলেটর। পিপিই পরা আরও তিনজন রয়েছেন তাঁর সামনে। কথা বলছেন ওই রোগীর সঙ্গে।

ক্যাপশনে বিজয় লিখেছেন, ‘সাফল্য কাকতালীয়ভাবে আসে না। এ জন্য অধ্যবসায় প্রয়োজন। করোনা হাসপাতালে গিয়েছিলাম। সেখানে একজন রোগীকে দেখলাম শয্যায় বসেই চ্যাটার্ড অ্যাকাউন্টেন্টস (সিএ) পরীক্ষার প্রস্তুতি নিচ্ছেন। আপনার একাগ্রতা আপনাকে কষ্ট ভুলে থাকতে সহায়তা করবে। এরপর সাফল্য অবধারিতভাবে আসবে।’

বিজ্ঞাপন

তবে করোনায় আক্রান্ত ওই রোগীর নাম–পরিচয় প্রকাশ করেননি বিজয়। বুধবার সকালে টুইটারে এ ছবি শেয়ার করার পর ১০ হাজারের বেশি মানুষ প্রতিক্রিয়া দেখিয়েছেন। বেশির ভাগই করোনায় আক্রান্ত ওই রোগীর অধ্যবসায়ের তুমুল প্রশংসা করেছেন।

প্রতিক্রিয়ায় কেউ কেউ ওই রোগীকে বাড়ি যেতে দেওয়ার সুযোগ দিতে আহ্বান জানিয়েছেন। একজন লিখেছেন, এটা ভালো যে তিনি হাসপাতালের শয্যায় বসেও পড়াশোনা করছেন। আশা হারাননি। তাঁকে বেশ সুস্থ দেখাচ্ছে। তাই তাঁকে বাড়িতে আইসোলেশনে থাকার সুযোগ দেওয়া দরকার। যাতে ওই শয্যাটি এমন কাউকে দেওয়া যায়, এ সংকটের সময় যার আসলেই হাসপাতালের করোনা ইউনিটে একটি শয্যার প্রয়োজন।

ভারত থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন