বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

১৫ ও ১৬ সেপ্টেম্বর আগরতলায় গণযাত্রা ও পথসভার করার কথা ছিল তৃণমূলের। তবে পুলিশ-প্রশাসনের অনুমতি না পাওয়ায় ২২ সেপ্টেম্বর ওই কর্মসূচি পালনের ঘোষণা দেয় দলটি। এরপরও অনুমতি মেলেনি। রাজ্য পুলিশ ও প্রশাসনের এমন সিদ্ধান্ত চ্যালেঞ্জ করে ত্রিপুরার হাইকোর্টে আবেদন করে তৃণমূল। আদালত ত্রিপুরার বিজেপি-শাসিত সরকারের কাছে জানতে চান, কেন মিছিল-সমাবেশ করার অনুমতি তৃণমূলকে দেওয়া হচ্ছে না।

মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব দেবের নেতৃত্বাধীন ত্রিপুরার রাজ্য সরকার আদালতকে জানায়, করোনা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে রাজ্যজুড়ে সভা-সমাবেশ ও মিছিল করার ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে। এ কারণে তৃণমূলকে আগরতলায় মিছিল-সমাবেশ করার অনুমতি দেওয়া হয়নি। এর পরিপ্রেক্ষিতে আদালত তৃণমূলকে জানিয়ে দেন, রাজ্য সরকারের এমন সিদ্ধান্তে হস্তক্ষেপ করবেন না আদালত।

শুরুতে পুলিশ-প্রশাসন ও পরে আদালতের কাছ থেকে অনুমতি পেতে ব্যর্থ হওয়ায় বুধবারের কর্মসূচি স্থগিত করতে বাধ্য হয় পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নেতৃত্বাধীন তৃণমূল। দলটির পক্ষ থেকে বুধবার ভোরে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে জানানো হয়, বুধবারের মিছিল-সমাবেশ আপাতত পিছিয়ে দেওয়া হয়েছে। আদালতের সিদ্ধান্ত অমান্য করবে না তৃণমূল কংগ্রেস। তবে রাজ্য প্রশাসনের এমন খামখেয়ালি নির্দেশনার এখতিয়ার সম্পর্কে দলের পক্ষ থেকে আদালতের কাছে জানতে চাওয়া হবে।

ভারত থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন