বিজেপি প্রধান জেপি নাড্ডা বলেন, বোর্ড ২০ জনের নাম নিয়ে আলোচনার পর একজন আদিবাসী ও নারীকে বেছে নেওয়ার সিদ্ধান্ত নেয়। রাষ্ট্রপতি নির্বাচনে বিজেপির প্রার্থী হিসেবে দ্রৌপদী মুর্মুর নাম ঘোষণার পর দলটির নেতা ও ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি টুইট করে তাঁকে অভিনন্দন জানান।

২০১৭ সালে ভারতের রাষ্ট্রপতি নির্বাচনে বিহার রাজ্যের গভর্নর ও দলিত সম্প্রদায়ের রামনাথ কোবিন্দকে মনোনয়ন দেয় বিজেপি। ক্ষমতাসীন দলের সমর্থনে রাষ্ট্রপতি নির্বাচিত কোবিন্দের মেয়াদ শেষ হচ্ছে ২৫ জুলাই।

ঝাড়খন্ডের প্রথম নারী গভর্নর দ্রৌপদী মুর্মু তাঁর রাজনীতি শুরু হয় একজন কাউন্সিলর হিসেবে। ওডিশা থেকে বিজেপির প্রার্থী হিসেবে দুই মেয়াদে আইনপ্রণেতা ছিলেন তিনি। বিজেপির সমর্থন নিয়ে রাজ্যে সরকার গঠন করা বিজু জনতা দলের (বিজেডি) মুখ্যমন্ত্রী নবীন পট্টনায়েকের মন্ত্রিসভায়ও ছিলেন দ্রৌপদী মুর্মু।

মঙ্গলবার একই দিনে রাষ্ট্রপতি প্রার্থী হিসেবে সাবেক কেন্দ্রীয় মন্ত্রী যশোবন্ত সিনহার নাম ঘোষণা করা হয়। রাষ্ট্রপতি প্রার্থী হতে বিরোধী জোটের পক্ষ থেকে এর আগে তিনজনকে প্রস্তাব দেওয়া হয়। তাঁরা হলেন ন্যাশনালিস্ট কংগ্রেস পার্টির (এনসিপি) শারদ পাওয়ার, ন্যাশনাল কনফারেন্সের (এনসি) প্রধান ফারুক আবদুল্লাহ ও মহাত্মা গান্ধীর নাতি গোপালকৃষ্ণ গান্ধী। তাঁরা প্রার্থী হতে রাজি হননি। এরপরই যশোবন্ত সিনহার নাম প্রস্তাব করে বিরোধী জোট।

ভারত থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন